Covid 19 surge: পুনে থেকে সরতে পারে ওয়ানডে সিরিজ

Covid 19 surge: পুনে থেকে সরতে পারে ওয়ানডে সিরিজ

করোনা মাথাচাড়া দেওয়ায় পুনে থেকে ম্যাচ সরাতে পারে বিসিসিআই

পুনে থেকে সরে যেতে পারে ভারত বনাম ইংল্যান্ডের একদিনের সিরিজ। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অন্দরে এমনই ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে।

  • Share this:

    #পুনে: দীর্ঘ অপেক্ষার পর মুখে হাসি ফিরেছে ক্রিকেটপ্রেমীদের। দেশের মাটিতে শেষপর্যন্ত টিম ইন্ডিয়াকে খেলতে দেখার সাক্ষী থাকতে পেরেছে তাঁরা। বিরাট কোহলি থেকে রোহিত শর্মা, অশ্বিন থেকে পন্থ, ক্রিকেটারদের প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছে গোটা দেশ। বিশেষ করে অস্ট্রেলিয়া থেকে যে কীর্তি গড়ে দেশে ফিরেছে ভারত তারপর এই দলটির ওপর প্রত্যাশা বেড়ে গিয়েছে। করোনার কারণে প্রায় এক বছর পর চলতি ভারত বনাম ইংল্যান্ড সিরিজ দিয়েই আবার ভারতের মাটিতে ফিরেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। চেন্নাইয়ে দ্বিতীয় টেস্ট থেকে মাঠে দর্শকও ফিরেছে। তবুও স্বস্তি নেই।

    আবারও করোনার প্রভাব পড়তে পারে চলতি সিরিজে। পুনে থেকে সরে যেতে পারে ভারত বনাম ইংল্যান্ডের একদিনের সিরিজ। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অন্দরে এমনই ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে। পুনে সহ গোটা মহারাষ্ট্রে আবারও যেভাবে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে তাতেই এই সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। আর সেটা ভেবেই বিকল্প কোনও কেন্দ্র তৈরি করে রাখতে চাইছে বোর্ড। আগামী ২৩, ২৬, ২৮ মার্চ পুনেয় জৈব সুরক্ষা বলয়ে একদিনের সিরিজের তিন ম্যাচ হওয়ার কথা।

    কিন্তু কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা মাঝে কমলেও ফের বাড়ছে মহারাষ্ট্রে। বৃহস্পতিবার সেখানে ৮০০০-এর উপর বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। এর মধ্যে মুম্বইয়েই সংখ্যাটা হাজারের বেশি। তাই মহারাষ্ট্রের বেশ কিছু জায়গায় নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। আহমেদাবাদে চতুর্থ টেস্টের পর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে ভারত। তারপর পুনেয় উড়ে যাওয়ার কথা দুই দলের। কিন্তু যে পরিস্থিতি, তা বাড়তে থাকলে পুনে থেকে সমস্ত ম্যাচ সরিয়ে নেওয়া হতে পারে।

    তবে বিকল্প হিসেবে কোন কেন্দ্রকে বেছে নেওয়া হবে তা এখনও চূড়ান্ত করেনি বোর্ড। এই মুহূর্তে দেশের ছয় কেন্দ্রে জৈব সুরক্ষা বলয়ে বিজয় হজারের খেলা চলছে। তারই কোনও একটিতে হয়তো করা হতে পারে। তবে কলকাতায় হওয়ার সম্ভাবনা কম। কেননা ২৭ মার্চ থেকে রাজ্যে শুরু হচ্ছে বিধানসভা নির্বাচন। তবে ভারতীয় বোর্ড জানিয়েছে সবদিক দেখেশুনে ক্রিকেটারদের এবং দর্শকদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: