• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • খারিজ রিভিউ পিটিশন, সুপ্রিম কোর্টে ফের ধাক্কা বিসিসিআইয়ের !

খারিজ রিভিউ পিটিশন, সুপ্রিম কোর্টে ফের ধাক্কা বিসিসিআইয়ের !

ফের সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেল বিসিসিআই। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের স্পেশ্যাল বেঞ্চে খারিজ হয়ে গেল বোর্ডের রিভিউ পিটিশন।

ফের সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেল বিসিসিআই। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের স্পেশ্যাল বেঞ্চে খারিজ হয়ে গেল বোর্ডের রিভিউ পিটিশন।

ফের সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেল বিসিসিআই। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের স্পেশ্যাল বেঞ্চে খারিজ হয়ে গেল বোর্ডের রিভিউ পিটিশন।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  ফের সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেল বিসিসিআই। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের স্পেশ্যাল বেঞ্চে খারিজ হয়ে গেল বোর্ডের রিভিউ পিটিশন। মাত্র ২৪ ঘণ্টা আগে সুপ্রিম কোর্টের তরফে অপ্রত্যাশিত লাইফ লাইন পেয়েছিল বোর্ড। কিন্তু অনুরাগদের অপ্রত্যাশিত স্বস্তি ২৪ ঘণ্টার বেশি স্থায়ী হল না।

    লোধা সুপারিশ কার্যকর করা ছাড়া এর ফলে আর কোনও বিকল্প আইনি রাস্তাই খোলা থাকল না বোর্ডের সামনে। ১৮ জুলাইয়ের রায় বলবৎ থাকার পর দ্রুত বিশেষ সাধারণ সভা ডাকার ভাবনা বোর্ড কর্তাদের মাথায়।

    সোমবারই সুপ্রিম কোর্টের স্পেশ্যাল বেঞ্চ জানিয়েছিল লোধা সুপারিশ কার্যকর করার জন্য নিদিষ্ট তারিখ বোর্ডকেই জানাতে হবে। মঙ্গলবারও ফের সুপ্রিম কোর্টের তরফে জানানো হয়, বোর্ডের তরফে তারিখ না জানানোর আগে কোনও রায়দান করা হবে না। অন্যদিকে বোর্ডের রিভিউ পিটিশন খারিজ হওয়াকে স্বাগত জানিয়েছে প্রাক্তন আইপিএল চেয়ারম্যান ললিত মোদি।

    আদালতে সোমবার বিচারপতিদের কড়া প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছিল বোর্ডকে ৷  অনুরাগ ঠাকুর এবং রত্নাকর শেঠির হলফনামা নিয়ে একপ্রস্থ হয়েছিল। বিচারপতিরা বলে দেন যে, ঠাকুরের হলফনামায় দেখা যাচ্ছে তিনি স্বীকার করেছেন যে, আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহরের কাছ থেকে তিনি একটা চিঠি চেয়েছিলেন। কিন্তু শেঠি আবার নিজের হলফনামায় তা অস্বীকার করেছেন। দু’টোয় তো কোনও মিলই নেই। শুধু তাই নয়, বোর্ডকে ‘উদ্ধত’ এবং ‘বাধাপ্রদানকারী’ হিসেবেও চিহ্নিত করে আদালত। অনুরাগদের সরানোর দাবি সোমবারও তুলেছিলেন লোধা কমিশনের আইনজীবী। কিন্তু তার পরেও অনুরাগদের বোর্ড মসনদ থেকে হটানোর প্রশ্নে দেশের প্রধান বিচারপতি কমিশন আইনজীবীকে বলেছেন যে, সেটা চরম পদক্ষেপ হয়ে যাবে। বরং আর কোনও উপায় আছে কি না, তা দেখতে বলা হয়। কিন্তু মঙ্গলবারের পর ফের অস্বস্তি বাড়ল বোর্ডের ৷ কারণ এখন ক্রমশই পরিস্থিতি আরও জটিল হয়েছে ৷

    First published: