আজই হাসপাতাল থেকে ছুটি পাচ্ছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, আপাতত কয়েকদিন বাড়িতেই থাকবেন পর্যবেক্ষণে

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় (ফাইল ছবি)

রবিবার সকাল দশ'টার পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া হবে সৌরভকে। সৌরভের শরীরের সমস্ত প্যারামিটার স্বাভাবিক রয়েছে। দুটি স্টেইন বসানোর পর এখন সম্পূর্ণ সুস্থ বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট।

  • Share this:

#কলকাতা: কোটি কোটি দাদা অনুগামীদের জন্য সুখবর। আজ অর্থাৎ রবিবারই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। মহারাজের পরিবার সূত্রে খবর, রবিবার সকাল দশ'টার পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া হবে সৌরভকে। সৌরভের শরীরের সমস্ত প্যারামিটার স্বাভাবিক রয়েছে। দুটি স্টেইন বসানোর পর এখন সম্পূর্ণ সুস্থ বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট। শনিবারও সবরকম পরীক্ষার রিপোর্ট স্বাভাবিক এসেছে। রবিবার সকালে একদফায় সৌরভকে পরীক্ষা করা হবে। তারপরই হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে যাবেন দাদা।

শনিবার রাতেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সৌরভকে ছুটি দিতে চেয়েছিলেন। তবে পরিবারের সঙ্গে আলোচনার পর রবিবার ছুটি নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। হাসপাতালে বসেই বোর্ডের বেশ কিছু কাজ করেছেন সৌরভ। মহারাজের ব্যক্তিগত সচিব রোহিত পোদ্দার বাইপাসের ধারে অ্যাপোলো হাসপাতালে প্রত্যেকদিনই উপস্থিত ছিলেন। সৌরভের সঙ্গে আলোচনা করে বোর্ড সংক্রান্ত যাবতীয় কাজ হাসপাতালের ভিতর বসেই করেছেন রোহিত। রঞ্জি ট্রফি স্থগিত রাখা থেকে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট হওয়া জয় শাহকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বক্তব্য রেখেছেন সৌরভ।

শুক্রবারের পর শনিবার রাতেও সৌরভ একসঙ্গে হাসপাতালে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন তাঁর টিম ইন্ডিয়ার অন্যতম সতীর্থ ভিভিএস লক্ষ্মণ। ভারতীয় ক্রিকেট থেকে বাংলা ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা হয় দুই বন্ধুর মধ্যে। সৌরভের সঙ্গে দিনভর ছিলেন স্ত্রী ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়। মেয়ে সানা গঙ্গোপাধ্যায়ও বাবার সঙ্গে প্রত্যেকদিনই হাসপাতালে বেশিরভাগ সময়টা কাটিয়েছেন। হাসপাতাল থেকে ছুটির পর আপাতত কয়েকদিন বাড়িতেই বিশ্রামে থাকবেন সৌরভ।

প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের চিকিৎসার পর ডাক্তার আফতাব খান জানিয়েছেন, "সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন সৌরভ। একজন স্বাভাবিক মানুষের মতো জীবন যাপন করতে পারবেন। কোনওরকম চিন্তার কারণ নেই।" পরিবার সূত্রে খবর, আগামী কয়েকদিন ডাক্তাররা সৌরভকে বাড়িতেই নিয়মিত পর্যবেক্ষণে রাখবেন। নিয়ম মেনে খাবার চার্ট তৈরি। কয়েকদিনের মধ্যেই তিনি কাজে যোগদান করতে পারবেন। প্রসঙ্গত, ২৭ জানুয়ারি শারীরিক অসুস্থতার কারণে চলতি মাসে দ্বিতীয়বার হাসপাতালে ভর্তি হন সৌরভ। বাইপাসের ধারে অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি হন দাদা। মহারাজকে চিকিৎসা করার জন্য প্রথমে তিন সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন হয়। তারপর সৌরভ এবং তার পরিবারের সঙ্গে আলোচনা করে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেবি শেঠি ও মুম্বইয়ের ডাক্তার অশ্বিন মেহেতা কলকাতায় আসেন। এই দুই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ মেনেই শুক্রবার সৌরভের হৃদযন্ত্র দুটি ব্লকেজে স্টেইন বসানো হয়।

উল্লেখ্য, ২ জানুয়ারি বছরের শুরুতেই জিম করতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন সৌরভ। সেই সময় হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল বলে জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। উডল্যান্ডস হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর দেখা যায় সৌরভের হৃদযন্ত্রে বড় সমস্যা রয়েছে। তিনটি ব্লকের ধরা পড়ে। সেই সময়ই একটি স্টেইন বসানো হয়। তারপর ডাক্তারদের পরামর্শ বাড়িতেই পর্যবেক্ষণে ছিলেন সৌরভ। তবে বাকি দুটি স্টেইন বসাতে হবেই তা ডাক্তাররা সেই সময় সৌরভকে জানিয়ে দেন। গত সপ্তাহে ফের অসুস্থ বোধ করায় তাই দ্রুত সেই কাজ সম্পন্ন করে নেন সৌরভ।

ERON ROY BURMAN

Published by:Shubhagata Dey
First published: