• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Icc T-20 World Cup: কলকাতায় সৌরভ-চেতন শর্মার বৈঠক, টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনা শুরু!

Icc T-20 World Cup: কলকাতায় সৌরভ-চেতন শর্মার বৈঠক, টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়ে আলোচনা শুরু!

বেহালায় বোর্ড প্রেসিডেন্টের অফিসে গিয়ে বৈঠক করেন চেতন শর্মা।

বেহালায় বোর্ড প্রেসিডেন্টের অফিসে গিয়ে বৈঠক করেন চেতন শর্মা।

বেহালায় বোর্ড প্রেসিডেন্টের অফিসে গিয়ে বৈঠক করেন চেতন শর্মা।

  • Share this:

#কলকাতা:

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়-চেতন শর্মা বৈঠক। বুধবার বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠক করলেন জাতীয় নির্বাচক কমিটির চেয়ারম্যান চেতন শর্মা। এদিন বেহালায় বোর্ড প্রেসিডেন্টের অফিসে গিয়ে বৈঠক করেন চেতন শর্মা। বৈঠক প্রসঙ্গে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় কিছু বলতে না চাইলেও ঘণ্টাখানেকের বৈঠকে মূলত বিরাটদের দল এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা হয় বলে সূত্রের খবর। কারণ সামনেই রয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তার দল গঠন সংক্রান্ত আলোচনা এই দিনের বৈঠকে হয়েছে বলে খবর।আগামী মাস থেকে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে ভারত। টিম ম্যানেজমেন্টের চাহিদামতো সেখানে কোনো অতিরিক্ত ওপেনার পাঠানো হবে কিনা সেই নিয়ে এদিন বৈঠকে আলোচনা হয় জানা গেছে।

চেতন শর্মা আলাদা করে সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খুলতে নারাজ। তবে বিসিসিআই সূত্রে খবর, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে আর কোনও ক্রিকেটার না পাঠানোর সিদ্ধান্ত বোর্ডের। শুভমান গিলের বদলি হিসাবে পৃথ্বী শ-কে চেয়ে টিম ম্যানেজমেন্টের তরফ থেকে মেল করা হয়েছিল। অভিমন্যু ঈশ্বরণকে স্ট্যান্ড বাই হিসাবে পাঠানো হলেও ম্যানেজমেন্ট নাকি পৃথ্বীকে পাঠানোর দাবি করে। যদিও ভারতীয় বোর্ড কর্তারা সেটা কোনওভাবেই মানতে রাজি হননি। নির্বাচন প্রধান চেতন শর্মাকে বোর্ড কর্তারা জানিয়ে দেন, কোনওভাবেই গিলের বদলি হিসাবে কাউকে পাঠানো হবে না। কারণ ২০ জনের টিম পাঠানো হয়েছে। স্ট্যান্ড বাই হিসাবে আরও ৪ ক্রিকেটার দলের সঙ্গে রয়েছেন। চোট-আঘাতের কথা ভেবেই স্ট্যান্ড বাই হিসাবে পাঠানো হয়েছে। তাহলে কেউ চোট পেলে নতুন কাউকে পাঠানো হবে কেন?  লোকেশ রাহুল এবং মায়াঙ্ক আগারওয়ালের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার দলের সঙ্গে যখন রয়েছে তাহলে তাদেরকে সুযোগ দেওয়া উচিত বলে মনে করেন কর্তারা। এমনকি ওপেনার হিসেবে অভিমন্যু ঈশ্বরণকে যখন স্ট্যান্ড বাই করে পাঠানো হয়েছে, তখন কেউ চোট পেলে, নিয়ম অনুযায়ী তাঁর টিমে চলে আসার কথা। এখন যদি তাঁকে উপেক্ষা করে অন্য কাউকে আবার উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় তাহলে বোর্ডের ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্ন উঠবে। তাই কোনও ক্রিকেটার পাঠানো হবে না বলেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পৃথ্বী ইস্যু নিয়ে গত কয়েক দিনে যেরকম বিতর্ক তৈরি করা হয়েছে, সেটা দেখে রীতিমতো অবাক বোর্ড কর্তারা। এদিন চেতন শর্মা বিকেলে সিএবি তে দেখা করেন প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়ার সঙ্গে। অনূর্ধ্ব ২৩ নিযুক্ত হওয়া বাংলার কোচ লক্ষ্মীরতন শুক্লার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন চেতন।মঙ্গলবার চেতন শর্মার কাকা বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ক্রিকেটার যশপাল শর্মা প্রয়াত হয়েছেন। সেই প্রসঙ্গে চেতন বলেন, "কাকার মৃত্যু দুর্ভাগ্যজনক। ভারতীয় ক্রিকেটে অপূরণীয় ক্ষতি।"

Published by:Suman Majumder
First published: