BCCI: করোনাকে থোড়াই কেয়ার! ভারতের মাটিতেই টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ?

BCCI: করোনাকে থোড়াই কেয়ার! ভারতের মাটিতেই টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ?

টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দেশের মাটিতেই করতে চায় বোর্ড

বিশ্বকাপ ভারতেই হবে। কোনো দ্বিতীয় বিকল্প নিয়ে এখনও আলোচনা হয়নি। গর্ভনিং বডি বা অ্যাপেক্স কাউন্সিলের কাছে বিকল্প ভাবনার কোনো খবর এখনও আসেনি

  • Share this:

    #মুম্বই: দেশে মৃত্যু মিছিল চলছে। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা। হাসপাতালে জায়গা নেই, অক্সিজেন নেই, চিকিৎসা ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। কিন্তু লোভ বড় বালাই। অন্ধ ধৃতরাষ্ট্রের মতো চোখ বন্ধ করে রেখেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। আইপিএলে ইতিমধ্যেই হানা দিয়েছে ভাইরাস। তাও গায়ের জোরে টুর্নামেন্ট চালিয়ে যেতে প্রস্তুত বিসিসিআই। তাই আসন্ন টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দেশের মাটি থেকে সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও এখনই তা জানানো হবে না সেটা নিশ্চিতভাবেই বলা যায়।

    এঁদের কাছে প্রাণ নয়, টাকা আগে। জীবন নয়, স্বার্থ আগে। অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতের মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) থেকে স্পষ্ট জানিয়েছে, কোনো বিকল্প নয় ভারতেরই মাটিতেই হবে বিশ্বকাপ। সম্প্রতি বিসিসিআইয়ের কর্মকর্তা ধীরাজ মালহোত্রা একটি সংবাদমাধ্যমকে জানান, কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে বিশ্বকাপের জন্য ভারতের বিকল্প হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিকে তৈরি রাখা হচ্ছে।

    ওই কর্মকর্তার এমন বক্তব্যে চটেছে বিসিসিআই। তারা জানিয়ে দিয়েছে, একজনের বক্তব্যে সবকিছু নিশ্চিত হয়ে যায় না। বিকল্প ভাবনা তৈরি রাখতে পারে একমাত্র গভর্নিং বডি। প্রতিযোগিতার ডিরেক্টরের সেই অধিকার নেই। সংবাদ সংস্থাকে বোর্ডের এক কর্মকর্তা বলেন, 'বিশ্বকাপ ভারতেই হবে। কোনো দ্বিতীয় বিকল্প নিয়ে এখনও আলোচনা হয়নি। গর্ভনিং বডি বা অ্যাপেক্স কাউন্সিলের কাছে বিকল্প ভাবনার কোনো খবর এখনও আসেনি। তাই বিশ্বকাপ সরতে পারে এরকম ভাবনাচিন্তাই অবাস্তব।'

    ওই কর্মকর্তা আরও বলেছেন, 'ভারত অনেক বড় দেশ। এখানে অনেক স্টেডিয়াম আছে। বিকল্প কেন্দ্র খুঁজতে চাইলে দেশের ভেতরেই তা পাওয়া যেতে পারে। পরিস্থিতি ঠিক না হলে কোনো রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবার উপর চাপ দিতে চাই না আমরা। আইপিএলের আয়োজন থেকে শিক্ষা নিয়েই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করা হবে।' বিশ্বস্ত সূত্রের খবর প্রাথমিকভাবে যে নয়টি জায়গায় খেলা হওয়ার কথা ছিল, সেই সংখ্যা কমিয়ে পাঁচে নামিয়ে আনা হবে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: