খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনে অনলাইন অনুশীলন, বিরাটদের জন্য বিশেষ 'অ্যাপ' বিসিসিআইয়ের

লকডাউনে অনলাইন অনুশীলন, বিরাটদের জন্য বিশেষ 'অ্যাপ' বিসিসিআইয়ের

ক্রিকেটারদের ফিট রাখতে বিশেষ অ্যাপ তৈরি করল বিসিসিআই

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দেশজুড়ে লকডাউন চলছে। তবে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হচ্ছে। তবে এই মুহূর্তে কোনওভাবেই খেলাধুলায় কোনও ছাড় মেলার ইঙ্গিত নেই। যদিও কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী ক্রীড়াবিদদের অনুশীলন কিভাবে শুরু করা যায়, সেই নিয়ে আলোচনা শুরু করেছেন। তবে এখনও সেসব চূড়ান্ত নয়। এই অবস্থায় ক্রিকেটারদের ফিট রাখতে বিশেষ অ্যাপ তৈরি করল বিসিসিআই। সূত্রের খবর, বিরাট, রোহিতদের ফিটনেস থেকে ব্যাটিং কৌশল... সবকিছুই অ্যাপ-এর মাধ্যমে করা হবে।

ভারতীয় ক্রিকেটার-রাই শুধুমাত্র এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন।        লকডাউনে ক্রিকেটাররা গৃহবন্দি রয়েছেন। প্রত্যেকেই বাড়িতেই ফিটনেস ট্রেনিং করছেন। তবে মাঠের ট্রেনিং কোনওভাবেই বাড়িতে সম্ভব নয়। দীর্ঘদিন ব্যাট-বলের সঙ্গে সম্পর্কহীন বিরাট-রা। এই অবস্থায় ক্রিকেটারদের ফিট রাখতে এবং মানসিকভাবে চাঙ্গা করতে অ্যাপ নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের। অ্যাপ-এ অনলাইন ট্রেনিং সেশন, চ্যাটরুমের ব্যবস্থাও রয়েছে।  বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফরা এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। ব্যাটিং, ফিল্ডিং, বোলিং কোচ আলাদা আলাদা করে সেশন ভিত্তিক ক্লাস নেবেন। ফিজিক্যাল ট্রেনিংয়ের আলাদা সেশন।

ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনা করে তৈরি হয়েছে এই  অ্যাপ। কিছু নির্দিষ্ট প্রশ্ন তৈরি করা হচ্ছে। লকডাউনের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত কে কীভাবে নিজেদের প্রস্তুত করেছেন? যেমন মহম্মদ গ্রামের সামি ফার্ম হাউসে রয়েছেন। তিনি অনেকটাই ট্রেনিং করতে পারছেন। তবে ভুবনেশ্বর কুমার, বুমরা শহরের মধ্যে ফ্ল্যাটে থাকেন। সেভাবে ট্রেনিং হচ্ছে না। তাই সব খতিয়ে দেখার পর ক্রিকেটারদের আলাদা আলাদা ট্রেনিং চার্ট তৈরি হচ্ছে। তবে দেখা হচ্ছে, যে  ক্রিকেটার যে রাজ্যে রয়েছেন সেখানে তাঁর পক্ষে ট্রেনিংয়ের জন্য স্টেডিয়াম কিংবা ট্রেনিং সেন্টার যাওয়া সম্ভব কিনা।বোর্ড সূত্রে আরও খবর, ইতিমধ্যেই ক্রিকেটারদের সঙ্গে এ'বিষয়ে আলোচনার কাজ সম্পন্ন করে ফেলেছেন দলের সাপোর্ট স্টাফরা।

ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রাজ্য সংস্থা এইভাবে কাজ শুরু করে দিয়েছে। সিএবি অনলাইনে ফিজিক্যাল ট্রেনিং, লক্ষণের ব্যাটিং ক্লাস চালু করেছে। মানসিকভাবে চাঙ্গা থাকার জন্য মনোবিদ ক্লাস করছেন। এবার, বিসিসিআই সেই পথেই হাঁটল। এরমধ্যেই বোর্ড কর্তাদের মধ্যে ভাবনা, আর্থিক ধাক্কা সামলাতে মিনি আইপিএল। তবে ক্যালেন্ডার অনুযায়ী  সময় বের করা মুশকিল। তবে সূচি অনুযায়ী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না হলে সেই জায়গায়  মিনি আইপিএল-এ উদ্যোগী হবেন বোর্ড কর্তারা। তবে বোর্ড কর্তারা একপ্রকার নিশ্চিত, সেপ্টেম্বরের আগে ক্রিকেট একেবারেই সম্ভব নয়।

ERON ROY BURMAN

Published by: Rukmini Mazumder
First published: May 15, 2020, 12:09 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर