‘‘শামিকে আটকাতে ২০২০ প্রকৃত অর্থে আমার কাছে জীবনের টি-২০’’: হাসিন

‘‘শামিকে আটকাতে ২০২০ প্রকৃত অর্থে আমার কাছে জীবনের টি-২০’’: হাসিন

২০২০ প্রকৃত অর্থে আমার কাছে জীবনের টি-২০। ব্যাডপাচ কাটিয়ে ফর্মে আমি ফিরবোই..., জানালেন হাসিন জাহান ৷

  • Share this:

Arnab Hazra

#কলকাতা: "শামি তুমি সাবধান..." ৷ এমনটা হতেই পারত এই স্টোরির হেডলাইন। আধঘণ্টা টেলিফোন ইন্টারভিউ তথ্য ৷  যে কোনও সাংবাদিকের কলমে সুনামি তুলতে বাধ্য। ফোনের ওপার থেকে ভারতীয় সুপারফাস্ট এক্সপ্রেসে'র স্ত্রী পরপর যা বারুদ, মশলা দিয়ে চললেন তা কার্গিল যুদ্ধের মিগ-২৭-এর থেকে কোনও অংশে কম নয়।

দেশকে জিতিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায়  নিয়েছে "বাহাদুর"। তবে বিদায় তো দূরঅস্ত, হাসিন জাহানে'র "অস্ত্র" এখন আরও ধারালো। কি ধারে কি ভারে।শেষ দু’বছর অনেক কিছু বদলে গেছে দুজনের কাছে।  মহঃ শামি এবং তাঁর স্ত্রী হাসিন জাহানের বারোমাস ঘুরপাক খেয়েছে যত না মাঠে তার থেকে বেশি আদালত চত্বরে। তাই স্বামী -স্ত্রী সম্পর্কের ভবিষ্যৎ হয়তো এখন আদালতের পিচে। আইনি লড়াইয়ে কেউ কাউকে একচুলও জায়গা ছাড়তে রাজি নয় যেখানে। বিচারাধীন বিষয়, তাই হাসিনের বোমা বারুদ আপাতত রিজার্ভ বেঞ্চবন্দি করতে বাধ্য । স্টোরির হেডলাইনও তাই বদলে ফেলা।

1856_FB_IMG_1577609589374

শেষ ডিসেম্বরে হাসিনের কিছু সোশ্যাল সাইট পোস্ট কৌতুহল বাড়ায়। "নায়িকা সংবাদ"-এর অভিনেত্রী হঠাৎ ফ্ল্যাশব্যাকে কেন। বীরভূমে বেড়ে ওঠা। সিউড়ি থেকে পড়াশোনা। পুরনো স্মৃতির পাতা সোশ্যাল সাইটে ঢেলে দেওয়া কেন ?

কারণ জানতেই উত্তর এল হাসিনের, " স্মৃতির পাতায় ডুব দিয়ে নিজেকে আরও মন থেকে শক্তিশালী করতে চাইছি। আসলে,আমি আমার অসম লড়াইয়ের রসদ খুঁজে নিতে চাইছি। বীরভূমের গ্রাম থেকে ভারতীয় ক্রিকেট দলের ড্রেসিং রুম শেয়ার করার অভিজ্ঞতা ক'জনের আছে। ২০২০ প্রকৃত অর্থে আমার কাছে জীবনের টি-২০। ব্যাডপাচ কাটিয়ে ফর্মে আমি ফিরবোই।"

না থেমে আরও বলে চলেন মহঃ স্বামী স্ত্রী, " আইনজীবীর সঙ্গে পরামর্শ করার নামে কদিন আগেও আমেরিকায় যায় মহম্মদ শামি। আমার কাছে খবর সেখানে যায় পাকিস্তানের আলিশবা। কয়েকদিন ফুর্তি করে দেশে ফেরে  শামি।"

শামি'র সঙ্গে সম্পর্কের বরফ গলার আর কোনও সম্ভাবনা নেই বলেও সাফ জানিয়ে দিচ্ছেন তিনি। আলিপুর আদালতে একাধিক মামলা হয়েছে  শামি ও হাসিন জাহান-কে ঘিরে। স্ত্রী হয়েও এখনও কোনও খোরপোষ টাকা পাননি হাসিন। শুরু হয়েছে নতুন আইনি লড়াই। তাঁর আইনজীবী আশিসকুমার চৌধুরী কথায়, " হাসিনের খোরপোষ বাতিলের নির্দেশ উচ্চতর বেঞ্চে আমরা চ্যালেঞ্জ করেছি। মডেলিং বেশে ছবি সংবাদপত্রে ছাপা হয়ে বেরিয়ে আসা মানেই মডেলিং থেকে আয় করা নয়।"

মহম্মদ শামির মেয়ে এখন হাসিনার সঙ্গেই থাকে। খোরপোষ এবং অন্যান্য খরচ বাবদ আশি হাজার টাকা পায় মেয়ে। আর্থিকভাবে পিছিয়ে থেকেও আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন হাসিন জাহান। নতুন ইংরেজি বছর তাই অনেক অর্থেই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হাসিনের কাছে।

সামনেই ক্রিকেটের টি-২০ বিশ্বকাপ। দেশের সাফল্যের অনেকটা নির্ভর করছে বোলার মহম্মদ শামির ওপর। এতো মাঠের লড়াই। মাঠের বাইরে ৪,৬ এর ফুলকি ছোটাতে ২০১৯ শেষ থেকেই কোমর বেঁধেছেন হাসিন জাহান। ২০২০, তাঁর কাছে লড়াই ছিনিয়ে নেওয়ার টি-২০। মেয়েকে নিয়ে অসম লড়াইটা চালিয়ে যাচ্ছেন রাতদিন।

First published: 04:50:14 PM Dec 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर