হোটেলের ব্যালকনি থেকে ছবি পোস্ট করে বিরাটের সঙ্গে মজা অনুষ্কার

বিরাটকে নিয়ে মজার পোস্ট অনুষ্কার

শনিবার ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে অনুষ্কা লিখেছেন, বাইরের কাজ ঘরে এনো না, এই কথাটা অন্তত কিছুদিনের জন্য বিরাটের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না

  • Share this:

    #সাউদাম্পটন: অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রথম সন্তানের জন্মের সময় অনুষ্কার পাশে থাকবেন বলে একটা টেস্ট খেলেই দেশে ফিরে এসেছিলেন বিরাট কোহলি। সেই সিরিজ অবশ্য তাঁকে এবং বেশ কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটারকে ছাড়াই জিতেছিল ভারত। তারপর দেশের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ জিতেছেন কোহলি। কিন্তু এবার আসল পরীক্ষা। বিলেতে জোড়া পরীক্ষার মুখে ভারত অধিনায়ক। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে নিউজিল্যান্ড এবং তারপর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ।

    এক, দুই দিনের মধ্যেই অনুশীলন শুরু করে দেবে ভারত। দম ফেলার সময় পাওয়া যাবে না। তার আগে ফ্যামিলি টাইম উপভোগ করে নিচ্ছেন সুপার ভি। স্ত্রী অনুষ্কা এবং কন্যা ভামিকাকে নিয়ে হোটেলের ঘরে কোয়ারেন্টাইন করছেন তিনি। বিশ্ব টেস্ট ফাইনাল এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলতে সে দেশে উড়ে গিয়েছেন বিরাট কোহলি। ইংল্যান্ডে পৌঁছে প্রথমবার প্রকাশ্যে এলেন অনুষ্কা শর্মা। ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে খুনসুটি করলেন বিরাটের সঙ্গে।

    ভারতীয় দলের প্রত্যেক সদস্যকেই এবার পরিবার নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সেই মতো তাঁরা সপরিবারে ইংল্যান্ডের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। কোহলি তাঁর ব্যতিক্রম নন। প্রত্যেকেই এখন নিভৃতবাসে রয়েছেন। আপাতত তিনদিন কেউ কোনও সতীর্থের সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না। তারপর তাঁরা ধীরে ধীরে অনুশীলন শুরু করতে পারবেন। শনিবার ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করে অনুষ্কা লিখেছেন, ‘বাইরের কাজ ঘরে এনো না, এই কথাটা অন্তত কিছুদিনের জন্য বিরাটের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না ’।

    ছবিতে অনুষ্কাকে হোটেলের বারান্দায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গিয়েছে। পরনে ক্রিম রঙের সোয়েট শার্ট, এবং ট্রাউজার। পিছনে রয়েছে সাদাম্পটনের সবুজ মখমলের মত মাঠ। ওপরে নীল আকাশ। যাকে বলে পারফেক্ট ইংলিশ সামার। উল্লেখ্য, শুক্রবার ছবি পোস্ট করেছিলেন ভারত অধিনায়ক। বিদেশ সফরে দীর্ঘসময় পরিবার সঙ্গে থাকলে ক্রিকেটাররা মানসিক দিক থেকে চাঙ্গা থাকেন। তাই ভারতীয় বোর্ড প্রথম থেকেই এই ব্যাপারটা মাথায় রেখেছিল। তবে মাঠে নেমে ভারত অধিনায়কের ব্যাট কতটা কথা বলে তার ওপর অনেকটাই নির্ভর করছে ভারতের ভাগ্য।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: