T20 World Cup :ভারতে নয়, টি ২০ বিশ্বকাপ প্রায় নিশ্চিত আরবে

T20 World Cup :ভারতে নয়, টি ২০ বিশ্বকাপ প্রায় নিশ্চিত আরবে

ভারতে নয়, টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আরবে প্রায় নিশ্চিত

শোনা যাচ্ছে ভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে সেপ্টেম্বরের শেষে। সেক্ষেত্রে কোনও দেশই নিজেদের জাতীয় দলকে ভারতে পাঠাতে রাজি হবে না। সিঁদুরে মেঘ দেখতে পাচ্ছেন সৌরভ, জয় শাহ, অরুণ ধামাল সহ বাকি কর্তারা

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: অনেক চেষ্টা করেছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। নিজেদের সর্বশক্তি দিয়ে দেশের মাটিতে করোনাকালে সফলভাবে আইপিএল আয়োজন করার। কিন্তু আর শেষপর্যন্ত পারলেন না বিসিসিআই কর্তারা। আইপিএল বন্ধ হতেই নভেম্বরে হতে চলা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ভারতে করা যে সম্ভব নয় বুঝে গিয়েছেন বিসিসিআই কর্তারা। আগেই জানা ছিল সেক্ষেত্রে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে টুর্নামেন্ট।

    আগের আইপিএল সাফল্যের সঙ্গে আয়োজন করেছিল আরব। সবচেয়ে বড় সুবিধে শারজা, দুবাই এবং আবুধাবি, এই তিনটি শহরে খেলা হবে। বায়ো বাবল তৈরি করা এবং তা বজায় রাখা আরবে অনেক বেশি সহজ। বিমান ভ্রমণ করতে হবে না অংশগ্রহণকারী দলগুলোকে। সড়ক পথে যাতায়াত সম্ভব। তাছাড়া সব পরিকাঠামো রয়েছে। ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং নিউজিল্যান্ড ভারতে আইপিএল আয়োজন দেখে নিশ্চিতভাবেই তাঁদের ক্রিকেটারদের আগামী নভেম্বরে আবার ঝুঁকির মুখে ফেলে দেবেন না।

    শোনা যাচ্ছে ভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে সেপ্টেম্বরের শেষে। সেক্ষেত্রে কোনও দেশই নিজেদের জাতীয় দলকে ভারতে পাঠাতে রাজি হবে না। সিঁদুরে মেঘ দেখতে পাচ্ছেন সৌরভ, জয় শাহ, অরুণ ধামাল সহ বাকি কর্তারা। তাই ভেতর ভেতর যোগাযোগ শুরু করেছেন বা করবেন আরব আমিরশাহি ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে। আইপিএল যদি সঠিকভাবে শেষ করতে পারতেন বোর্ড কর্তারা, তাহলে হয়তো একটা বিশ্বাসযোগ্যতা জন্মাত।

    আইপিএল ছিল টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের টেস্টিং গ্রাউন্ড। সেই পরীক্ষায় বিশ্রীভাবে ফেল করেছে বিসিসিআই। তাই দেশের মাটিতে করোনা পরিস্থিতি ঠিক না হওয়া পর্যন্ত, টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মত বড় টুর্নামেন্ট আয়োজন করার ঝুঁকি নিতে রাজি নয় বিসিসিআই। শুধু বিভিন্ন দেশের ক্রিকেট বোর্ড নয়, ভারত সরকার এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে এগোচ্ছে বিসিসিআই। তবে এখনই সরকারি ঘোষণা করা হবে না। আইসিসির একটি মিটিং আছে কয়েক দিন পরে। তার আগে শেষ চেষ্টা করা হবে বোর্ডের তরফে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    লেটেস্ট খবর