আরপিএফের মারে মৃত্যু যুবকের

আরপিএফের মারে মৃত্যু যুবকের
Photo: প্রতীকী ছবি

দীর্ঘ এক মাসের লড়াই শেষ ! অবশেষে গতকাল গভীর রাতে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়লেন বছর আঠাশের দেবদাস ৷ আরপিএফ-র বেধরক মারে স্পাইনাল কর্ড ভেঙে গিয়েছিল দেবদাসের ৷

  • Share this:

    #ঝাড়গ্রাম: দীর্ঘ এক মাসের লড়াই শেষ ! অবশেষে গতকাল গভীর রাতে মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়লেন বছর আঠাশের দেবদাস ৷ আরপিএফ-র বেধরক মারে স্পাইনাল কর্ড ভেঙে গিয়েছিল দেবদাসের ৷ এরপর দীর্ঘ এক মাসের লড়াই শেষে কলকাতার একটি সরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হল তাঁর ৷

    ঘটনার সূত্রপাত গত ২৪ জুন ৷ খড়গপুরের কৌশল্যার বাসিন্দা দেবদাস ৷ পরিবারের লোকের সঙ্গে ২৪ জুন ঝাড়গ্রামের দহিজুড়িতে বোনের সাধের অনুষ্ঠানে আসেন দেবদাস ৷ সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল এতক্ষণ ৷ কিন্তু বাড়ি ফেরার সময় স্টেশনে আসতেই ঘটে বিপত্তি ৷ স্টেশনে আসার পরই প্রস্রাব করতে রেললাইনে নামেন তিনি ৷ সেই সময়ই ঝাড়গ্রাম আর পি এফ থানার কর্তব্যরত পুলিশ অফিসারেরা তাকে রেললাইন থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে বেধরক মারধর করে ৷ সেদিনই রাত ১০.৩০টা নাগাদই ঝাড়গ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে ৷ এরপর পরিস্থিতির অবনতি হতে থাকলে কলকাতার একটি সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে ৷ হাসপাতালে বেডে শুয়েই সমস্ত ঘটনা জানায় দেবদাস ৷

    চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, দেবদাসের স্পাইনালকর্ড ভেঙে গিয়েছে ৷ অবশেষে দীর্ঘ একমাসের লড়াই শেষে মৃত্যু হয় তাঁর ৷ এই ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন দেবদাসের পাড়া প্রতিবেশী এবং পরিবার পরিজন ৷ দোষীদের শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন তারা ৷ আর এতেই চাপে পড়ে গিয়েছে আরপিএফ ৷ যদিও তারা নিজেদের দোষ অস্বীকার করছেন ৷ কিন্তু তাদের কথায় একাধিক অসঙ্গতি ধরা পড়েছে ৷ তবে, গোটা ঘটনাটির তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন আরপিএফের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক ৷


    First published: