দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

স্যানিটাইজার বানিয়ে বিনা মূল্যে গ্রামের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিল এলাকার যুবকরা

স্যানিটাইজার বানিয়ে বিনা মূল্যে গ্রামের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিল এলাকার যুবকরা

স্যানিটাইজার বানিয়ে বিনা মূল্যে গ্রামের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিলো এলাকার যুবকরা

  • Share this:

#হাওড়া: ভয়াবহ পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে করোনা সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচবার অন্যতম উপায় 'হ্যান্ড স্যানিটাইজার যা কার্যত বাজার থেকে উধাও হয়ে গিয়েছে। বেশি দাম দিয়েও মিলছেনা এই জীবাণুনাশক এই স্যানিটাইজার । ই-কমার্স সাইট গুলোতেও এর তীব্র হাহাকার দেখা দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে এগিয়ে এলো বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট অব সায়েন্সের মেটেরিয়াল সায়েন্সের বিজ্ঞানী অরিজিৎ জানা, তার নেতৃত্বে শুরু হলো জীবাণুনাশকটি প্রস্তুত করার কাজ ৷ যা ইতিমধ্যেই গ্রামীণ হাওড়ায় আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে ইতি মধ্যেই বাগনান ও আমতার ব্লক ডেভলপমেন্ট অফিস থেকে বরাত দিয়েছেন খোদ বি ডি ও রা |

এই কাজে অরিজিতের পশে এগিয়ে এলো গ্রামীণ হাওড়ার আমতা-১ ব্লকের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। সম্পূর্ণ বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে তৈরি করা হচ্ছে এই জীবানুনাশক অরিজিৎ জানা জানান,তাঁরা মূলত উড স্পিরিট,প্রাকৃতিক অ্যালুভেরা,পাতিত জল ব্যবহার করে এই স্যানিটাইজারটি প্রস্তুত করেছেন। তাঁদের তৈরি হ্যান্ড স্যানিটাইজার গ্রামীণ হাওড়ার আমতা-১ ও বাগনান-১ ব্লকের বিভিন্ন গ্রামের হাজারো মানুষকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পৌঁছে দিচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যরা। প্রথম পর্যায়ে ৩০ মিলিলিটারের ২০০০ টি বোতলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রস্তুত করে মানুষকে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। স্থানীয় উদং-ফতেপুর-সোনামুই,আগুন্সী,ভূঁয়েড়ার বাসিন্দাদের হাতে পরিবার পিছু তুলে দেওয়া হচ্ছে একটি করে বোতল। কোভিড-১৯ সংক্রমণনাশক এই উপাদান তৈরিতে দিন রাত এক করে কাজ করে যাচ্ছেন এলাকার যুবকরা |

এই প্রয়াসকে একবাক্যে স্বাগত জানিয়েছেন গ্রামের বহু মানুষ।স্যানিটাইজার তৈরির কথা জানাননি হতেই ইতিমধ্যেই গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে অরিজিৎ বাবুর সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে। বাগনান-১ ব্লক প্রশাসন ইতিমধ্যেই দেশের অগ্রণী প্রতিষ্ঠানের এই বিজ্ঞানীকে দিয়ে স্যানিটাইজার তৈরির প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলে জানা গেছে। বি ডি ও র তরফে সব রকম কাঁচা সামগ্রী তাদের সরবরাহ করা হবে এবং তা দিয়ে তৈরী হবে স্যানিটাইজার | গ্রামীণ যুবকদের হাত ধরে কিছুটা হলেও করোনার বিরুদ্ধে লড়াইটা কিছুটা হলেও সহজ হলো বলে জানালেন এক রাজ্যসরকারী আধিকারিক | তার দাবি এই স্যানিটাইজার তৈরী বিষয়টা সরকারকেও তারা জানাবেন দরকারে এই যুবকদের সাহায্যে আগামীদিনে এটিকে স্বনির্ভর প্রকল্পের আওতায় আনা হবে |

Published by: Akash Misra
First published: March 25, 2020, 11:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर