• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • 'বাঁশের ব্যারিকেড করে করোনা ঠেকানো যাবে না,' বলছেন বিশিষ্ট চিকিত্‍সক অভিজিত্‍ চৌধুরী

'বাঁশের ব্যারিকেড করে করোনা ঠেকানো যাবে না,' বলছেন বিশিষ্ট চিকিত্‍সক অভিজিত্‍ চৌধুরী

ডাক্তার অভিজিত্‍ চৌধুরী (ফাইল ছবি)

ডাক্তার অভিজিত্‍ চৌধুরী (ফাইল ছবি)

তিনি বলছেন, 'লোহার বাসর ঘর করেও লখিন্দরকে সাপের ছোবল থেকে বাঁচানো যায়নি। তেমনই বাঁশের বেড়া দিয়ে জেলে ভরার মত করে বাসিন্দাদের আটকে রেখে করোনা ঠেকানো যাবে না।'

  • Share this:

#বর্ধমান: বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে করোনাকে ঠেকানো যাবে না, কন্টেইনমেন্ট জোনের ধরন নিয়ে সংবেদনশীলভাবে ভিন্ন পথ বাছতে হবে প্রশাসনকে। এমনই মত রাজ্য সরকারের কোভিড উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য বিশিষ্ট চিকিৎসক অভিজিৎ চৌধুরীর।

তিনি বলছেন, 'লোহার বাসর ঘর করেও লখিন্দরকে সাপের ছোবল থেকে বাঁচানো যায়নি। তেমনই বাঁশের বেড়া দিয়ে  জেলে ভরার মত করে বাসিন্দাদের আটকে রেখে করোনা ঠেকানো যাবে না।'

কোনও এলাকায় করোনা আক্রান্তের হদিশ মিললেই সেই এলাকাকে কন্টেইনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে সেই এলাকা ঘিরে ফেলা হচ্ছে। সেই জোনের মধ্যে থাকা বাসিন্দাদের বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বের হতে দেওয়া হচ্ছে না। ওই এলাকায় বাইরের বাসিন্দাদের ঢুকতেও দেওয়া হচ্ছে না। এই পদ্ধতি একেবারেই ঠিক নয় বলেই মত এই বিশিষ্ট চিকিৎসকের।

শনিবার বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের কাদম্বিনী সভাঘরে কোভিড কেয়ার নেটওয়ার্ক নামে একটি সংস্থার বর্ধমান শাখার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসে  এমনই মত ব্যক্ত করলেন বিশিষ্ট চিকিত্‍সক।

অভিজিতবাবু বলেন, 'কোভিড মানেই আতঙ্ক বা মৃত্যুভয়, বিভীষিকা নয়। কোভিডে আক্রান্ত হয়ে যাঁরা সুস্থ হয়ে উঠেছেন সেই কোভিড জয়ী এবং কোভিড সহযোগী তাঁরাই এই  সমাজের সম্পদ। তাঁদের এই পরিস্থিতিতে কাজে লাগাতে হবে। লখিন্দরকেও সাপের ছোবল থেকে লোহার বাসর ঘর বাঁচাতে পারেনি। তেমনই কন্টেইনমেন্ট জোনের নামে বাঁশের ব্যারিকেড দিয়েও করোনাকে ঠেকানো যাবে না। এ ব্যাপারে আমরা প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলব। বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে  সমাজকে বিচ্ছিন্ন দ্বীপে পরিণত করা হচ্ছে। কন্টেইনমেন্ট জোনের নামে মানুষগুলোকে যেন জেলখানায় পুরে দেওয়া হচ্ছে। খুব কষ্টের মধ্যে তাঁরা আছেন। তাঁরা মনে করছেন সমাজ থেকে তাঁরা বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছেন। মানসিকভাবে তাঁদের মেরে দিয়ে কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই করা যাবে না।  প্রশাসনকে আরও সংবেদনশীল হতে হবে। মানুষকে বেঁধে রেখে করোনাকে প্রতিহত করা যাবে না। '

তাঁর বক্তব্য, করোনার জেরে মানুষ স্বার্থপর হয়ে যাচ্ছে। কেউ কারও কথা ভাবছে না। করোনা নিয়ে একটা ভুল ভাবনা রয়েছে। তাকে দূর করতে হবে। করোনা মানে মৃত্যু নয়, করোনা মানে জয় – এটাই তুলে ধরতে হবে। প্রশাসনের সমস্ত নিয়ম মানতে হবে। বেড়া না দিয়ে অন্য কোনোভাবে ভাবতে হবে। পুকুরঘাটে বেড়া দিয়ে করোনাকে ঠেকানো যাবে না। বরং প্রশাসনের সঙ্গে সহযোগিতা করেই বিকল্প পথের সন্ধান করতে হবে। আজকের দিনে এটাই বড় প্রয়োজন।

SARADINDU GHOSH

Published by:Arindam Gupta
First published: