প্রতিপক্ষ সেলিমকে দেখেই এগিয়ে গিয়ে নমস্কার, চণ্ডীতলায় প্রচারে সৌজন্য যশের

প্রতিপক্ষ সেলিমকে দেখেই এগিয়ে গিয়ে নমস্কার, চণ্ডীতলায় প্রচারে সৌজন্য যশের

প্রচারে বেরিয়ে মুখোমুখি যশ- সেলিম৷

যশ দাশগুপ্ত এবং মহম্মদ সেলিমের এই সাক্ষাৎ বর্তমান সময়ে এ রাজ্যের রাজনীতিতে ব্যতিক্রমী ঘটনা বলেই ধরতে হবে৷

  • Share this:

    #চণ্ডীতলা: শনিবার সন্ধ্যে ৭.১০৷ হুগলির চণ্ডীতলার চণ্ডীবাড়ি এলাকায় প্রচারে ব্যস্ত সিপিএম প্রার্থী মহম্মদ সেলিম৷ আর তখনই সবাইকে অবাক করে দিয়ে হঠাৎই সেখানে হাজির হলেন বিজেপি প্রার্থী যশ দাশগুপ্ত৷ বঙ্গ রাজনীতি যেভাবে উত্তপ্ত হয়ে রয়েছে, তাতে দুই প্রার্থী মুখোমুখি হলেও পারস্পরিক সৌজন্য বজায় থাকবে, এমন নিশ্চয়তা নেই৷ রাজনীতিতে নবাগত হলেও অভিজ্ঞতা এবং বয়স- দুইয়ের নিরিখেই সিনিয়র প্রতিপক্ষের প্রতি সৌজন্য দেখাতে কুণ্ঠা বোধ করলেন না যশ৷ নমস্কার করে মহম্মদ সেলিমের দিকে এগিয়ে যান তিনি৷ হাসিমুখে প্রতি নমস্কার করেন সিপিএম নেতাও৷ দুই প্রার্থীর কুশল বিনিময়ে রাজনীতির উত্তাপ উবে মুহূর্তে তৈরি হয় সৌজন্যের আবহ৷

    শনিবার জনাই এলাকায় নিজের প্রচার পর্ব সেরে ওই এলাকা দিয়েই গাড়িতে ফিরছিলেন চণ্ডীতলার বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত৷ তখনই তিনি খেয়াল করেন, মহম্মদ সেলিম এলাকায় প্রচার করছেন৷ আর তা দেখেই গাড়ি থেকে নেমে এসে সিপিএম প্রার্থীর দিকে এগিয়ে যান তিনি৷

    ভোট প্রচারে গিয়ে রাজ্যের অনেক নেতানেত্রীই প্রতিপক্ষের প্রতি ন্যূনতম সম্মানটুকুও দেখাচ্ছেন না বলে অভিযোগ উঠছে৷ গরমাগরম কথার লড়াইয়ে পারস্পরিক সৌজন্য বোধই যেন বঙ্গ রাজনীতিতে বিরল দৃশ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ সেদিক দিয়ে দেখতে গেলে যশ দাশগুপ্ত এবং মহম্মদ সেলিমের এই সাক্ষাৎ বর্তমান সময়ে এ রাজ্যের রাজনীতিতে ব্যতিক্রমী ঘটনা বলেই ধরতে হবে৷

    রাজনীতি এসে প্রতিপক্ষের প্রতি সৌজন্য এবং শ্রদ্ধা দেখানোকে বরাবর গুরুত্ব দিয়েছেন টলিউড তারকা দেব৷ এবার একই পথ অনুসরণ করলেন রাজনীতিতে নবাগত যশও৷

    Rana Karmakar

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: