দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বীরভূমে অসহায় ও গৃহহীন মানুষদের হাতে তুলে দেওয়া হল শীত বস্ত্র

বীরভূমে অসহায় ও গৃহহীন মানুষদের হাতে তুলে দেওয়া হল শীত বস্ত্র

স্টেশন এলাকার বসবাসকারী মানুষদের ও স্টেশনে থাকা গৃহহীন মানুষদের শীতবস্ত্র প্রদান করার আগে তাদের প্রত্যেকেই স্যানিটাইজার দেওয়া হয়, দেওয়া হয় মাস্ক৷

  • Share this:

#বীরভূম: বীরভূমের সাঁইথিয়া জি আর পি ও বীরভূম পথ প্রদর্শকদের উদ্যোগে বড়দিন উপলক্ষ্যে সাঁইথিয়া স্টেশন এলাকার কয়েকশো দুঃস্থ ও অসহায় মানুষদের হাতে শীতবস্ত্র তুলে দেওয়া হল। পাশাপাশি সাঁইথিয়া রেল স্টেশনে রাত্রি বাস করা গৃহহীন মানুষদেরও তারা  কম্বল প্রদান করেন । প্রধান আকর্ষণ ছিল বড়দিন উপলক্ষ্যে ওই সমস্ত মানুষগুলোর পাশে থেকে তাদের জন্য খাওয়ার ব্যবস্থা করা৷  সেই জন্য একটি ছোট্ট করে চড়ুইভাতির আয়োজনও করা হয় ওই সমস্ত মানুষজনদের নিয়ে।

স্টেশন এলাকার বসবাসকারী মানুষদের ও স্টেশনে থাকা গৃহহীন মানুষদের শীতবস্ত্র প্রদান করার আগে তাদের প্রত্যেকেই স্যানিটাইজার দেওয়া হয়, দেওয়া হয় মাস্ক৷ পাশাপাশি মাস্ক তুলে দেওয়া হল উপস্থিত সকলের হাতেই। উপস্থিত ছিলেন বীরভূমের সাঁইথিয়া জি আর পির ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক প্রীতম দাস , সাঁইথিয়া এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবী মানস সিংহ ও অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। জানা গিয়েছে এই সমস্ত জিনিসগুলি সাঁইথিয়া জি আর পি এলাকার দুঃস্থ মানুষদের হাতে তুলে দেওয়ার কথা ভেবেছিলেন৷  সেই মতো তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় সাঁইথিয়ার বীরভূম পথ প্রদর্শক।

বীরভূম পথ প্রদর্শক সংস্থার মাধ্যমে সাঁইথিয়া স্টেশন সংলগ্ন এলাকার দুঃস্থ - অসহায় লোকদের,  পাশাপাশি সাঁইথিয়া স্টেশনে থাকা গৃহহীন মানুষদের চিহ্নিত করা হয়। এরপর ওই সমস্ত মানুষদের কাছে সাহায্যের লক্ষ্যে বীরভূম পথপদর্শক ও সাঁইথিয়া জিআরপি যৌথ ভাবে পৌছায়। বীরভূম পথপ্রদর্শকের পক্ষ থেকে সভাপতি চিন্টু রায় ও খোকন মন্ডল জানান, খুবই কম সময়েই মধ্যেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে , আগামিদিনে আমরা এই রকম সমাজসেবা মূলক কর্মসূচি চালিয়ে যাবে সাঁইথিয়া পথপদর্শক। উলেখ্য এর আগেও সাঁইথিয়াতে এই ভাবেই শীতকালে অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে সাঁইথিয়া জিআরপি। আগামিদিনেও যাতে সাঁইথিয়া স্টেশন এলাকার অসহায় মানুষদের যাতে কোনও রকম সমস্যা না হয় তার জন্য যথাসাধ্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে সাঁইথিয়া জিআরপি-র তরফে।

Published by: Pooja Basu
First published: December 27, 2020, 12:41 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर