corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাজার খোলা-বন্ধে বিধিনিষেধের মেয়াদ কি বাড়বে? জানতে উদগ্রীব বর্ধমানের বাসিন্দারা

বাজার খোলা-বন্ধে বিধিনিষেধের মেয়াদ কি বাড়বে? জানতে উদগ্রীব বর্ধমানের বাসিন্দারা

তবে পুজোর বাজারের কথা মাথায় রেখে এখন আর কড়া বিধিনিষেধ চাইছেন না শহরের ব্যবসায়ীরা।

  • Share this:

#বর্ধমান: বর্ধমান শহরে করোনার সংক্রমণ রুখতে দোকান বাজার খোলার ক্ষেত্রে বিধি নিষেধের মেয়াদ কি বাড়বে? সেই প্রশ্নকে ঘিরেই এখন শহরজুড়ে কৌতুহল তুঙ্গে। প্রশাসনিক বিধিনিষেধের জেরে এখন সকালের দিকে একবেলার বেশি সবজি বাজার বসছে না। অনেক দোকান বিকেল বা রাত আটটার পর বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সেই বিধি-নিষেধ মেয়াদ বাড়বে কিনা তা জানতে উদগ্রীব ক্রেতা-বিক্রেতা উভয়েই। পরিস্থিতি পর্যালোচনার পর পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক বিজয় ভারতী।

বর্ধমান শহরে করোনার সংক্রমণ ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। সংক্রমণ বাড়ছে কাটোয়া, কালনা, মেমারি  শহরেও। এইসব শহর ও বেশ কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় বাজারে ভিড় নিয়ন্ত্রণে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছে জেলা প্রশাসন। ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সেই বিধিনিষেধ জারি থাকবে বলে জানিয়েছিল জেলা প্রশাসন। সেই নিষেধাজ্ঞা অনুযায়ী বিভিন্ন বাজার খোলা এবং বন্ধের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। পাইকারি বাজার থেকে শুরু করে খুচরো বাজার, চায়ের দোকান থেকে শুরু করে হোটেল-রেস্তোরাঁ সবকিছু খোলা-বন্ধের সময়সীমা নির্দিষ্ট করা রয়েছে। এই বিধি নিষেধের ফলে একবারের বেশি সবজি বাজার বসছে না।

জেলা প্রশাসনের বক্তব্য, করোনার সংক্রমণ রুখতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পাশাপাশি বাজারে ভিড় নিয়ন্ত্রণ জরুরি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতেই বাজার খোলা বন্ধের সময় সীমা নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। সংক্রমণের হার খতিয়ে দেখার পরই এই বিধি নিষেধের মেয়াদ বাড়বে কিনা সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আজকালের মধ্যেই পরবর্তী সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা হতে পারে বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে। তবে পুজোর বাজারের কথা মাথায় রেখে এখন আর কড়া বিধিনিষেধ চাইছেন না শহরের ব্যবসায়ীরা। তাঁরা বলছেন, এমনিতেই করোনা পরিস্থিতি ও লকডাউনের  জেরে ব্যবসা ব্যাপকভাবে মার খেয়েছে। পুজোর বাজারকে হাতিয়ার করে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে না অনেকেই। তাই এখন আর বিধি-নিষেধের কড়াকড়ি  চাইছেন না তাঁরা। জেলা প্রশাসন অবশ্য জানিয়েছে, বর্ধমান ও কাটোয়া শহরে এখনও করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। তাই কিছু কিছু জায়গায় বিধি নিষেধ মেয়াদ বাড়তে পারে। তবে সব দিক খতিয়ে দেখেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Published by: Pooja Basu
First published: August 30, 2020, 4:25 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर