• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • লালগড়ের বাঘহত্যা চোরাশিকার নয়, সচেতনতার অভাবেই বাঘহত্যা! দাবি ওয়াইল্ডলাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরোর

লালগড়ের বাঘহত্যা চোরাশিকার নয়, সচেতনতার অভাবেই বাঘহত্যা! দাবি ওয়াইল্ডলাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরোর

News18Network

News18Network

লালগড়ের বাঘহত্যা চোরাশিকার নয়, সচেতনতার অভাবেই বাঘহত্যা! দাবি ওয়াইল্ডলাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরোর

  • Share this:

    #লালগড়: লালগড়ে বাঘ হত্যায় চোরাশিকারিদের হাত নেই। শিকার উৎসব চলাকালীন বাঘ মারা হয়। এমনটাই দাবি ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরোর।

    এই ঘটনার পর থেকে জঙ্গলমহলে শিকার উৎসবে লাগাম পরানোর উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে বলে জানান সংস্থার কর্তারা। চোরাশিকার ও পাচার দমনে এরাজ্যের সীমান্তসুরক্ষা নিয়ে আশঙ্কাপ্রকাশও করেছেন তাঁরা। বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ নিয়ে একটি কর্মশালা চলছে কলকাতায়। তাতে যোগ দিয়েছেন বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা-সহ দক্ষিণ এশিয়ার আট দেশের প্রতিনিধিরা।

    কিছুদিন আগে এক অজানা জন্তুকে ঘিরে আতঙ্ক ছড়িয়েছিল লালগড় ও সংলগ্ন এলাকায়। শেষমেশ, বনদফতরের ট্র্যাপ ক্যামেরায় ধরা পড়ে, অজানা যন্তুটি আসলে একটি বাঘ। এরপর, দেড় মাস ধরে আতঙ্কের পরিবেশ। বাঘ ধরতে নানা উদ্যোগ। কিন্তু, ফাঁদে পা দেয়নি জঙ্গলের রাজা। শেষপর্যন্ত বাঘঘড়ার জঙ্গলে মেলে বাঘের ক্ষতবিক্ষত দেহ। সেই ঘটনার প্রায় এক মাস পর, বাঘ হত্যার কারণ হিসেবে শিকার উৎসবকেই দায়ী করল ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল।

    আরও পড়ুন-কালবৈশাখীতে মৃত ৩, ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি দক্ষিণবঙ্গের চার জেলায়

    এ রাজ্যেই রয়েছে নেপাল, ভুটান ও বাংলাদেশ সীমান্ত। চোরাশিকার ও পাচারে এরাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন এই সংস্থা! তাদের তরফ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে, পরিস্থিতির মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সবার একজোট হওয়া প্রয়োজন।

    চিন, ভিয়েতনাম ও ইওরোপের বিস্তীর্ণ অংশ জুড়ে বন্যপ্রাণের বিরাট চোরা কারবার। তাতে ভারতের অবস্থান উৎস দেশ হিসেবেই। চোরা কারবার দমনে পরিকাঠামো উন্নয়নের দাবিও তুলেছে ওই সংস্থা। একইসঙ্গে সচেতনতা বাড়ানোর বার্তাও দিয়েছে তারা।

    আরও পড়ুন-রিহ্যাব সেন্টারে রোগীর রহস্যমৃত্যু, পিটিয়ে খুনের অভিযোগ পরিবারের

    First published: