ধূসর খড়গপুরে ঘাস জমির খোঁজে হন্যে হয়ে ছুটে বেড়াচ্ছেন রামকলি

ধূসর খড়গপুরে ঘাস জমির খোঁজে হন্যে হয়ে ছুটে বেড়াচ্ছেন রামকলি
  • Share this:

#খড়গপুর: ধূসর কংক্রিটের জঙ্গলের মাঝে একটুকরো সবুজ খুঁজে বেড়ান খড়গপুরের রামকলি গুপ্তা। ছাগল চড়িয়েই তাঁর দিন গুজরান। কিন্তু ছাগলের খাবার জোগাড় করতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাঁকে। শহরে যে সবুজের পরিমাণ দিন দিন কমছে। এবারের উপনির্বাচনেও ভোট দিয়েছেন বুকে আশা নিয়ে, এবার হয়তো ভোটবাবুরা মুখ তুলে চাইবেন। সবুজের ছায়ায় জীবন ফিরে পাবে রেল শহর।

খড়গপুরের রামকলি গুপ্তা। রেল শহরে থাকলেও তাঁর জীবনে আধুনিকতার ছোঁয়া লাগেনি। স্বামীহারা এই মহিলা, ছাগল পালন করে দিন গুজরান করেন। কিন্তু আর কতদিন এই জীবিকা চালাতে পারবেন। এই প্রশ্নই কুরে কুরে খাচ্ছে তাকে।

উন্নয়ন বলতে ভোটবাবুরা বোঝেন ঝাঁ চকচকে শপিং মল কিংবা ঝকঝকে রাস্তা। এদিকে শহরে যে দিন দিন সবুজ কমছে, সেদিকে কারো হুঁশই নেই। ছাগলগুলো খাবে কি? এবার কি তাহলে গাছের পাতাও কিনতে হবে দাম দিয়ে?

দিন আনা দিন খাওয়া মানুষ। জীবিকা বন্ধ হয়ে গেলে পেট চলবে কীভাবে! আশঙ্কাটা বুকে নিয়েই উপনির্বাচনে ভোট দিলেন রামকলি। ভোট আসে ভোট যায়। কিন্তু রামকলিদের আওয়াজ শুনতে পান না নেতা মন্ত্রীরা।

চোখের সামনেই ধূসর হয়ে যায় শহর। গুটিকয় সুবজ গাছ প্রাণ হাতে করে দাঁড়িয়ে থাকে শহরের প্রান্তে। ওরাও আজ বুঝে গেছে... উন্নয়ন আর আধুনিকতার কাছে হেরে যেতে হবে ওদের। তবু আশা ছাড়া আর কীসের বাঁচা? তাই এখনও আশায় রামকলি গুপ্তা।

First published: 02:42:00 PM Nov 26, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर