দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

শুভেন্দুর সভায় ঢুকে পড়া কালো গাড়িটি কার! খুঁজছে সব পক্ষই

শুভেন্দুর সভায় ঢুকে পড়া কালো গাড়িটি কার! খুঁজছে সব পক্ষই
যত বিপত্তি এই কালো গাড়িটিকে ঘিরেই। নিজস্ব চিত্র

কালো গাড়িটি কার, কী উদ্দেশ্যে ওই পথে এসেছিল তাইই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন।

  • Share this:

#কাশীপুর:  নন্দীগ্রামের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল এবার পুরুলিয়ার কাশীপুরে। শুভেন্দু অধিকারীর সভায় ফের ছড়াল উত্তেজনা।  পুরুলিয়ার কাশীপুরে শুভেন্দু অধিকারীর সভায় তার বক্তব্য পেশ করার আগেই ছড়াল উত্তেজনা। এদিন সভাস্থলের কাছে তৃণমূলের পতাকা লাগানো একটি গাড়ি চলে এলে উত্তেজনা ছড়ায়। মাইক্রোফোন হাতে পরিস্থিতি সামাল দেন শুভেন্দু। যদিও সভার তাল কাটে। উত্তেজিত হয়ে পড়েন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। কালো গাড়িটি কার, কী উদ্দেশ্যে ওই পথে এসেছিল তাইই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন।

 গত ৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর সভায় উত্তেজনা ছড়িয়েছিল। হঠাৎই শুরু হয়ে যায় চেয়ার ছোঁড়াছুঁড়ি। তার পর পড়তে শুরু করে ঢিল। বিজেপির তরফে তৃণমূলকে কাঠগড়ায় তোলা হলেও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, খেজুরির তৃণমূল বিধায়কের বিজেপিতে যোগদানের বিরোধিতায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন বিজেপি কর্মীরাই।

রবিবার বিকেলে অবশ্য পরিস্থিতি ছিল আলাদা। বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ, পুরুলিয়ার কাশীপুরে শুভেন্দু অধিকারীর সভামঞ্চে তখন বক্তব্য রাখছেন পুরুলিয়ার সাংসদ জ্যোতির্ময় মাহাতো। সেই সময় সভা মঞ্চের ডানদিক থেকে শুরু হয়ে যায় চিৎকার চেঁচামেচি। চেয়ার ছেড়ে মঞ্চে দাঁড়িয়ে পড়েন শুভেন্দু অধিকারী সহ বিজেপির নেতারা। ভিড়ের মধ্যে দেখা যায় তৃণমূলের পতাকা লাগানো একটি এস ইউ ভি গাড়ি। মুহূর্তের মধ্যে উত্তেজনা ছড়ায় বিজেপি কর্মীদের মধ্যে। দেখা যায় গাড়ির মধ্যে একাধিক ব্যক্তি রয়েছেন। মাটিতে বসে রাস্তায় সভা শুনছিলেন সমর্থকরা। সেই দিকে এগোতে থাকে গাড়ি। লাঠি, কঞ্চি নিয়ে তখন উত্তেজিত বিজেপি কর্মীরা গাড়িটাকে ঘিরে ধরেন। শুরু করেন গাড়ির ওপর আক্রমণ। লাঠির আঘাতে ভাঙে গাড়ির কাঁচ। গাড়ির মধ্যে থাকা নেতাদের বার করার চেষ্টা করা হয়। গাড়ির একাধিক জায়গা যার জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ভিড়ের মধ্যে অবশ্য গাড়িটি বেরিয়ে যায়। মিনিট পাঁচেক ধরে চলা এই পরিস্থিতির জেরে কেটে যায় সভার তাল।

তখনই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হাতে মাইক্রোফোন তুলে নেন শুভেন্দু অধিকারী। কর্মীদের শান্ত হতে বলেন। গাড়িটিকে এগিয়ে যেতে রাস্তা করে দিতে নির্দেশ দেন। এর পর এগিয়ে যায় অবশ্য ওই কালো গাড়িটি।  শুভেন্দু অধিকারী অবশ্য দাবি করেন, সভা ভণ্ডুল করতেই এই কান্ড ঘটানো হয়েছে। তিনি বলেন, "স্থানীয় পুলিশকে তো দেখা যাচ্ছে না। ট্রাফিক পুলিশ অন্য দিকে দিয়ে গাড়ি না পাঠিয়ে এদিক দিয়ে সভার মধ্যে দিয়ে গাড়ি পাঠাল। এই মিটিং দেখে পুলিশের মাথা খারাপ হয়ে গেছে।" একই সাথে তিনি তোপ দেখেন, জেলার পুলিশ সুপারকে। তিনি মঞ্চ থেকে বলেন, ডায়মন্ড হারবার থেকে পছন্দের এসপিকে পাঠিয়েছেন ভাইপো। তিনিই এসব করছেন। শুভেন্দু বলতে শুরু করলে অবশ্য শেষমেশ উত্তেজনা প্রশমিত হয়। আগামী ১৯ তারিখ পুরুলিয়ায় সভা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তার পালটা সভা পুরুলিয়ার জয়পুরে করবেন বলে জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

Published by: Arka Deb
First published: January 10, 2021, 7:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर