Bengal Weathe Alert : নাগাড়ে ঝড়-বৃষ্টি, সঙ্গে প্রবল বজ্রপাতের পূর্বাভাস! সতর্কবার্তা মৌসম ভবনের

ঝড়-বৃষ্টি-বজ্রপাতের পূর্বাভাস

মঙ্গলবার আবার ঝড় বজ্র বিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাতের (Heavy rainshower) সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যজুড়ে অন্তত এমনটাই জানিয়ে রাজ্যের প্রশাসনিক ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরকে সতর্ক করল আবহাওয়া দফতর (IMD)।

  • Share this:

    #কলকাতা : ইয়াসের স্মৃতি এখনও দগদগে বাংলায়, এরই মধ্যে ফের ধেয়ে আসছে ঝড় এবং বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি (Heavy rain and thunderstorm)। সোমবার বজ্রপাতের (Lightning death) জেরে পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ২৭ জনের। যার মধ্যে শুধুমাত্র মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরে মারা গিয়েছেন সাতজন। মঙ্গলবার আবার ঝড় বজ্র বিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাতের (Heavy rainshower) সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যজুড়ে অন্তত এমনটাই জানিয়ে রাজ্যের প্রশাসনিক ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরকে সতর্ক করল আবহাওয়া দফতর (IMD)।

    ইতিমধ্যেই আগামী ১১ ও ২৬ তারিখ বান আসার আশংকা থাকায় মানুষ ও প্রশাসনকে সতর্ক করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নেওয়া হয়েছে নানা সতর্কতামূলক পদক্ষেপ। এবার মৌসম ভবন ভয় আরও বাড়িয়ে জানাচ্ছে ফের একবার বৃষ্টিতে ভাসতে পারে রাজ্য। ঝড় বৃষ্টির সঙ্গে থাকতে পারে আবারও প্রবল বজ্রপতনের আশঙ্কা। এমনটাই অনুমান আবহাওয়া দপ্তরের।

    প্রশাসনিক কর্তাদের সতর্কবার্তা মৌসম ভবনের

    আলিপুর আবহাওয়া দফতর তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার থেকেই বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি শুরু হতে পারে রাজ্যজুড়ে। বিশেষত দুই ২৪ পরগনা, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর এবং হাওড়ার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে রয়েছে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা। এছাড়া পশ্চিম মেদিনীপুর এবং বীরভূমের প্রায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে ঝড়ো হাওয়া।

    প্রতীকী ছবি৷ প্রতীকী ছবি৷

    প্রায় ৭ থেকে ১১ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে গোটা বঙ্গ জুড়ে। বাদ পড়েনি উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিও। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী দু-তিন ঘণ্টা বৃষ্টিতে ভিজতে পারে কোচবিহার, কালিম্পং, জলপাইগুড়ির বিস্তীর্ণ অঞ্চল। তবে আবহাওয়াবিদদের অনুমান এখনই তীব্র দাবদাহ থেকে মুক্তি পাচ্ছে না বঙ্গবাসী। আজ কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী সর্বনিম্ন তাপমাত্রা হতে পারে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ২ ডিগ্রি কম। অন্যদিকে বাতাসে আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ প্রায় ৮৯%। আর তার জেরেই বিকেলের দিকে শুরু হতে পারে হালকা বৃষ্টি।

    সাথে সাথেই বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতাসহ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায়। এছাড়া মুর্শিদাবাদ জেলাকেও সতর্ক করা হয়েছে আবহাওয়া দপ্তর তরফে। বর্তমানে উত্তর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হচ্ছে নিম্নচাপ। এই নিম্নচাপের হাত ধরেই বর্ষা প্রবেশ করার কথা ওড়িশা, ছত্রিশগড় এবং বাংলায়। কিন্তু আবহাওয়াবিদদের অনুমান অনুযায়ী তার আগেই ফের একবার বৃষ্টিতে ভাসতে পারে পশ্চিমবঙ্গ।

    আগামী ১১ জুন নাগাদ বঙ্গোপসাগরীয় নিম্নচাপের হাত ধরে বাংলায় প্রবেশ করবে বর্ষা। তবে তার আগেই আজকের এই দুর্যোগ সম্পর্কে সর্তকতা জারি করল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। কারণ ভরা কোটাল আরও বেশি বাড়তে পারে দুর্যোগের দাপট। ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে, মূলত আকাশ থাকবে মেঘলা। বজ্রপাত থেকেও সতর্ক করা হয়েছে মানুষজনকে।

    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: