Home /News /south-bengal /
West Bengal News: পূর্ণিমার কোটাল, তার মধ্যে নিম্নচাপ, ভয়ে কাঁপছে সুন্দরবন! ফের মারাত্মক আশঙ্কা উপকূলে

West Bengal News: পূর্ণিমার কোটাল, তার মধ্যে নিম্নচাপ, ভয়ে কাঁপছে সুন্দরবন! ফের মারাত্মক আশঙ্কা উপকূলে

আশঙ্কায় সুন্দরবন

আশঙ্কায় সুন্দরবন

West Bengal News: রবিবার রাতের মধ্যে সব ট্রলারকে সমুদ্র থেকে নিরাপদ স্থানে ফিরে আসতে বলা হয়েছে। সোমবার থেকে সমুদ্রে নামায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

  • Share this:

    #রায়দিঘি: রাতভর দফায় দফায় বৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জুড়ে। রবিবার সকাল থেকে মেঘ ও রোদের লুকোচুরি চলছে। শনিবার থেকে সুন্দরবন জুড়ে সতর্কবার্তা প্রচার শুরু হয়েছে। পুলিশ ও ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে মৎস্যজীবীদের সতর্ক করে দেওয়া হচ্ছে। কাকদ্বীপ, সাগর, নামখানা, ফ্রেজারগঞ্জের বন্দর ও মৎস্যজীবীদের গ্রামগুলিতে চলছে প্রচার। এই পরিস্থিতিতে নতুন করে কোন মৎস্যজীবী সমুদ্রে বেরিয়ে না যায় সেই দিকে নজরদারি চালানো হচ্ছে পুলিশ-প্রশাসন তরফে।

    রবিবার রাতের মধ্যে সব ট্রলারকে সমুদ্র থেকে নিরাপদ স্থানে ফিরে আসতে বলা হয়েছে। সোমবার থেকে সমুদ্রে নামায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আগামিকাল থেকে ভারী বৃষ্টি ও ৫০ কিমি বেগে ঝোড়ো বাতাস বইবে বলে হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস। যার জেরে উত্তাল হবে সমুদ্র। জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা করা হচ্ছে। সামনেই পূর্ণিমার কোটাল। তারমধ্যে নিম্নচাপ। সব মিলিয়ে নতুন আশঙ্কায় সুন্দরবনের উপকূলের মানুষ।

    আরও পড়ুন: মুখপাত্র কুণাল ঘোষকে সেন্সর, পার্থ চট্টোপাধ্যায় ইস্যুতে বড় পদক্ষেপ তৃণমূলের! দূরত্ব বাড়ানোর কৌশল?

    এদিকে, নামখানায় পুলিশ প্রশাসনের তরফে হাতানিয়া দোয়ানিয়া নদীতে ভুটভুটিতে করে মাইকিং শুরু করা হয়েছে নদীতে থাকা মৎস্যজীবীদের জন্য। নামখানা হাতানিয়া দোয়ানিয়া নদীতে কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে নামখানা থানার পক্ষ থেকে। দেখে নেওয়া হচ্ছে নতুন করে কেউ গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে না যায়।‌ আর সেই কারণে নামখানা পুলিশ প্রশাসনের তরফে নামখানা হাতানিয়া দোয়ানিয়া নদীর উপরে ভুটভুটি নিয়ে মাইকিংয়ের মাধ্যমে সতর্ক করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, এই মুহূর্তে সমুদ্র উত্তাল রয়েছে, ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া হাওয়া বইতে পারে।

    আরও পড়ুন: কেন এমন মারাত্মক ঘটনা ঘটালেন? পুলিশের গাড়িতেই জানিয়ে দিলেন জাদুঘরের সেই জওয়ান

    গোসাবা ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে গোসাবা পঞ্চায়েত ও সুন্দরবন কচুখালী গ্রাম পঞ্চায়েতের উদ্যোগে বিভিন্ন নদী বাঁধ এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে। বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের ফলে আগামিকাল থেকে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি এবং ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। সেই কারণে নদী তীরবর্তী এলাকায় যে সব মানুষজন বসবাস করেন ও নদীতে যে মৎস্যজীবীরা মাছ ধরতে গেছেন, তাদেরকেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে অবিলম্বে তারা নৌকা নিয়ে যেন ফিরে আসেন। এছাড়া যেসব মৎস্যজীবী মাছ ধরতে যাবেন, তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে নদীতে মাছ ধরতে না যাওয়ার জন্য।

    --অর্পণ মণ্ডল

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Sundarban, West Bengal news

    পরবর্তী খবর