Home /News /south-bengal /

Gangasagar Mela: QR CODE লাগানো রিস্টব্যান্ড দর্শনার্থীদের জন্য, গঙ্গাসাগর মেলায় এবার ই-রেজিস্ট্রেশন

Gangasagar Mela: QR CODE লাগানো রিস্টব্যান্ড দর্শনার্থীদের জন্য, গঙ্গাসাগর মেলায় এবার ই-রেজিস্ট্রেশন

দর্শনার্থীদের সুবিধার্থে ই-রেজিস্ট্রেশন করানোর সিদ্ধান্ত রাজ্যের। এবার গঙ্গাসাগর মেলায় নিয়মের কড়াকড়ি।

  • Share this:

#কলকাতা: গঙ্গাসাগর মেলায় এবার ই-রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। রাজ্য প্রশাসন এমনই পরিকল্পনা নিয়েছে বলে নবান্ন সূত্রে খবর। শুধু তাই নয়, রেজিস্ট্রেশন না থাকলে গঙ্গাসাগর মেলায় প্রবেশাধিকার হবে না, তেমনটাই পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য। তীর্থযাত্রীদের গঙ্গা সাগর মেলায় আসতে রাজ্য সরকারের দেওয়া নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে  রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। ওয়েবসাইটের নাম গঙ্গাসাগর মেলা ডট ইন। অনলাইনে না করে থাকলে মেলায় পৌঁছানোর আগেই অফলাইন রেজিস্ট্রেশন করতেই হবে।

আরও পড়ুন- জঙ্গলের গা ছমছমে পরিবেশ! বিলাসবহুল কুঁড়েঘরে রাত্রিবাস! ডেস্টিনেশন শিরোমণির গড়

রেল স্টেশন, বাস স্ট্যান্ড, ফেরি ঘাট ও বিমান বন্দরে গঙ্গাসাগর মেলার জন্য কিয়োক্স বসানো হবে। যার দায়িত্বে থাকবে এনজিও বা স্বনির্ভর গোষ্ঠী। ই-রেজিস্ট্রেশন না থাকলে গঙ্গাসাগরে প্রবেশাধিকার নেই। রেজিস্ট্রেশনে নিজের নাম, মোবাইল নম্বার, ই-মেল এবং সরকারি পরিচয়পত্র অর্থাৎ আধার কার্ড, ভোটার কার্ড, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স,পান কার্ড দিতেই হবে।

আরও পড়ুন- চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে গ্রেফতার পুর প্রশাসক! নেপথ্যে উঠে আসছে যে অভিযোগ...

রেজিস্ট্রেশনের সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যেক তীর্থযাত্রীর হাতেই দেওয়া হবে QR CODE লাগানো রিস্ট ব্যান্ড। যাতে মেলায় গিয়ে কেউ হারিয়ে গেলে খুঁজে দেওয়া সহজ হয়। সূত্রের খবর, এছাড়াও চালু করা হচ্ছে  ‘গঙ্গাসাগর মেলা-২০২২’ মোবাইল অ্যাপ। তীর্থ যাত্রীদের গাইড হিসেবে কাজ করবে এই অ্যাপ। পথ নির্দেশিকা ছাড়াও, এই অ্যাপের সাহায্যেই তীর্থযাত্রী জোয়ারের সময় মেলাপ্রাঙ্গনে পৌঁছাতে কোথায় কখন কী ধরনের গাড়ি ও লঞ্চ পরিষেবা পাবে সমস্ত তথ্য জানতে পারবে।

রাজ্য সরকার এবার গঙ্গাসাগর মেলাকে ধর্মীয় পর্যটন বিকাশে আর্ন্তজাতিক স্তরে তুলে ধরতে সরাসরি ই-প্লাটফর্মকে ব্যবহার করতে চায়। সেই জন্য রাজ্যের তথ্য প্রযুক্তি দফতররকে পরিকল্পনার রূপরেখা তৈরির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।  তীর্থযাত্রীদের সহজে মেলা প্রাঙ্গনে পৌঁছে দেওয়া থেকে পূণ্য স্থান ও পুজো দেওয়ার ব্যবস্থা করতে এক নয়া প্যাকেজও তৈরির প্রস্তাব বিবেচনা করছে রাজ্য সরকার। দেওয়া হয়েছে সাগর ভ্রমন।

কেমন হবে এই প্যাকেজ?

নবান্ন সূত্রে খবর, এই প্যাকেজের সুবিধা নিতে হলে যাত্রীকে সরকারি ওয়েব সাইট থেকে ই-রেজিস্ট্রেশন করে আসতে হবে। বাবুঘাটে সরকারি কিয়ক্সে সমস্ত এই ভ্রমনের জন্য সমস্ত তথ্য ও টিকিট নেওয়ার ব্যবস্থা থাকবে। যাত্রী এই পরিষেবা নিতে চাইলে তাঁকে নির্দিষ্ট গাড়ি বা লঞ্চে মেলা প্রাঙ্গনে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। প্রশাসন সমুদ্র তটে থাকার ব্যবস্থা করবে। গাইড দিয়ে তীর্থ ভূমি দেখাবার ব্যবস্থা করবে। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে নিয়োগ করা হবে তাদের পূণ্য স্নান করানো ও পুজোর ব্যবস্থা করার জন্য।

শুধুই মেলা দর্শন নয়, শাহী স্নানের সময়ের সঙ্গমের জল, গঙ্গা মাটি ও কপিল মুনির মন্দিরের প্রসাদও সরাসরি দেশ বিদেশের ভক্তের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ারও ব্যবস্থা করছে রাজ্য সরকার। তবে গঙ্গার জলের বদলে ভক্ত চাইলে অনলাইনে কপিল মুনির মন্দিরে পুজোও দিতে পারবেন। সেই প্রসাদও ভক্তের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: Gangasagar, Gangasagar mela, Nabanna, STATE GOVERNMENT

পরবর্তী খবর