#EgiyeBangla: বাঁকুড়ার রুখা মাটিতে রসের সন্ধান দিচ্ছে আঙুর চাষ

চলছে আঙুর চাষ ৷ নিজস্ব চিত্র ৷

  • Share this:

    #বাঁকুড়া: রুখা শুখা মাটির গলা ভেজাচ্ছে আঙুর। না, ইতালির তাসকানি বা মহারাষ্ট্রের নাসিকে নয়, এ রাজ্যেই। উদ্যান পালন দফতরের সহযোগিতায় বাঁকুড়ার চাষিরা আঙুর ফলাচ্ছেন রুক্ষ লাল মাটিতে। বিকল্প চাষে লাভের ঝুলি ভরেছে আরও। ভবিষ্যতে ওয়াইন প্ল্যান্ট তৈরির পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে। বিকল্প চাষের দিকে চাষিদের আগ্রহী করেছে রাজ্য সরকার। কৃষি ও উদ্যান পালন দফতরের সহযোগিতায় তালড্যাংরায় পরীক্ষামূলকভাবে কয়েক বছর ধরে আঙুর চাষ করা হয়। সাফল্য মেলায় ছাতনা, সিমলাপাল ও ওন্দাতেও আঙুর চাষ করছেন চাষিরা। প্রায় ১০টি প্রজাতির আঙুর নিয়ে চাষের পর পাঁচ প্রজাতির আঙুর বাঁকুড়ার মাটিতে ভাল ফলন দেবে বলে চিহ্নিত করেন কৃষি বিষেশজ্ঞরা। হাতে-কলমে চাষের পাঠ দিয়েছে কৃষি ও উদ্যান পালন দফতর।

    আরও পড়ুন: #EgiyeBangla: রাজ্য সরকারের লোকপ্রসার প্রকল্পে সরকারি ভাতা-পেনশন পাচ্ছেন লোকশিল্পীরা

    আঙুর চাষের খুঁটিনাটি - ১ একর জমিতে চাষের খরচ প্রায় ২.৫ লক্ষ টাকা - ১ একর জায়গায় লাগানো যায় প্রায় ৪৫০টি আঙুরগাছ - একটি গাছ ১০ বছর ফল দেবে - গাছ পিছু ১০ কিলো আঙুর পাওয়া যাবে উদ্যান পালন দফতরের আশা, স্থানীয় বাজারের গণ্ডি পেরিয়ে রাজ্যের সব বাজারেই বাঁকুড়ার আঙুরের চাহিদা বাড়বে। এছাড়াও পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, ওয়াইন তৈরির উপযোগী বিভিন্ন প্রজাতির আঙুর চাষও এখানে ভাল হবে। ভবিষ্যতে ওয়াইন প্ল্যান্ট তৈরির পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে থোকায় থোকায় স্বপ্ন বুনছেন চাষিরা।

    First published: