দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

দামোদরের তীরে শুটিং ঘিরে উত্তেজনা বর্ধমানে, মারমুখি গ্রামবাসীদের দেখে আত্মসমর্পণ পুলিশের

দামোদরের তীরে শুটিং ঘিরে উত্তেজনা বর্ধমানে, মারমুখি গ্রামবাসীদের দেখে আত্মসমর্পণ পুলিশের
আত্মসমর্পণ পুলিশের

বর্ধমানের চৈত্রপুর গ্রামে বুধবার সকালে কয়েকজন তরুণ তরুণী গিয়ে নিজেদের ছবি তুলছিল। সেই সময় তাদের সঙ্গে গ্রামবাসীর বচসা হয়। এক গ্রামবাসীকে ওই তরুণ-তরুণীরা মারধর করে বলে অভিযোগ।

  • Share this:

দামোদরের তীরে শুটিং করাকে কেন্দ্র করে তুলকালাম কাণ্ড ঘটল বর্ধমানের চৈত্রপুরে। শুটিং করতে যাওয়া তরুণ-তরুণীদের সঙ্গে গ্রামবাসীদের বিবাদ হয়। সেই বিবাদ চরম আকারে পৌঁছলে সেখানে বর্ধমান থানার পুলিশ যায়। তখন পুলিশের সঙ্গে গ্রামবাসীদের হাতাহাতি বেঁধে যাওয়ার উপক্রম হয়। লাঠিসোঁটা নিয়ে পুলিশকে ঘিরে ফেলে গ্রামবাসীরা। লাঠি ফেলে দিয়ে দুই হাত তুলে কার্যত আত্মসমর্পণ করে এক পুলিশ কর্মী। পরে বর্ধমান থানা থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। আটক তরুণ তরুণীদের উদ্ধার করে পুলিশ।

বর্ধমানের চৈত্রপুর গ্রামে বুধবার সকালে কয়েকজন তরুণ তরুণী গিয়ে নিজেদের ছবি তুলছিল। সেই সময় তাদের সঙ্গে গ্রামবাসীর বচসা হয়। এক গ্রামবাসীকে ওই তরুণ-তরুণীরা মারধর করে বলে অভিযোগ। এরপরই গ্রামবাসীদের ক্ষোভের মুখে পড়েন তাঁরা। গ্রামবাসীদের তাড়া খেয়ে তিনজন পালিয়ে যায়। বাকি তিনজনকে আটক করে ক্লাব ঘরে তালাবন্দি করে রাখে গ্রামবাসীরা। সেই খবর পেয়ে বর্ধমান থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে গ্রামবাসীদের সঙ্গে তাঁদের বচসা হয়। এরপর গ্রামবাসীরা পুলিশকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায়। লাঠিসোঁটা নিয়ে পুলিশকর্মীদের ওপর চড়াও হয় গ্রামবাসীরা। তখনই হাতের লাঠি ফেলে দেন এক পুলিশকর্মী। দুই হাত তুলে আত্মসমর্পণ করেন তিনি। এরপর বর্ধমান পুলিশ লাইন থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী ওই এলাকায় যায় এবং ছবি তুলতে যাওয়া তরুণ-তরুণী ও উদ্ধার করে নিয়ে আসে। ঘটনার জেরে এলাকায় পুলিশি টহল চলছে।

বর্ধমান থানার পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সাতসকালে বর্ধমানের গোলাপবাগ ও তার আশপাশ এলাকা থেকে ছ জন তরুণ তরুণী ওই গ্রামে গিয়েছিল। সেই সময় বাজারের দিকে যাওয়া এক চাষিকে তারা মারধর করে বলে অভিযোগ। তা নিয়েই এই গণ্ডগোলের সূত্রপাত। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, এলাকায় তরুণ-তরুণীরা মাঝেমধ্যেই আসছে। নানা নেশাও করছে তারা। শুধু তাই নয়, তাদের অভব্য আচরণে ক্ষুব্ধ এলাকার বাসিন্দারা। তারাই গায়ে পড়ে এক গ্রামবাসীকে গালিগালাজ করে এমনকী তাঁকে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দিয়ে মারধর করে বলে অভিযোগ। প্রতিবাদে একজোট হয়ে গ্রামবাসীরা প্রতিবাদ করে। পুলিশ গিয়ে গ্রামবাসীদের ওপরই চড়াও হলে কয়েকজন পুলিশকে উদ্দেশ্য করে ক্ষোভ উগড়ে দেয়।

SARADINDU GHOSH

Published by: Akash Misra
First published: September 2, 2020, 6:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर