দল বদলের সাড়ে তিন ঘণ্টার মধ্যেই প্রার্থী! মালদহে রাজনৈতিক চমক জেলা পরিষদ সদস্যের

দল বদলের সাড়ে তিন ঘণ্টার মধ্যেই প্রার্থী! মালদহে রাজনৈতিক চমক জেলা পরিষদ সদস্যের

Ujjwal Chowdhury

দল বদলানোর মাত্র তিন ঘণ্টার মধ্যেই নতুন দলে বিধানসভার প্রার্থী! শুক্রবার মালদহে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় চমক উজ্জ্বল চৌধুরী৷

  • Share this:

#মালদহ: দল বদলানোর মাত্র তিন ঘণ্টার মধ্যেই নতুন দলে বিধানসভার প্রার্থী! শুক্রবার মালদহে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় চমক উজ্জ্বল চৌধুরী৷ এদিন সকাল পর্যন্ত তাঁর রাজনৈতিক পরিচয় ছিল বিজেপি-র মালদহ জেলা পরিষদ সদস্য ও এসসি মোর্চার রাজ্য সহ সভাপতি। ঘড়ির কাঁটায় সকাল সাড়ে ১১ টায় তৃণমূল ভবনে এসে দলে যোগদান করেন উজ্জ্বলবাবু । এর তিন ঘণ্টার মধ্যেই দুপুর আড়াইটে নাগাদ তৃণমূলের ঘোষিত প্রার্থী তালিকায় মালদহ বিধানসভায় প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয় তাঁর নাম৷

কে এই উজ্জ্বল চৌধুরী ?

দল বদল তাঁর কাছে নতুন নয়। ২০১১ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত কংগ্রেস পরিচালিত মালদা জেলা পরিষদের সভাধিপতি পদে ছিলেন তিনি । এরপর কংগ্রেস ছেড়ে যোগ দেন তৃণমূলে। রাজ্যে ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত ভোটের আগে ফের দল বদল করেন । এবার ঘাস-ফুল ছেড়ে পদ্ম ফুলে যোগ দেন তিনি৷ বিজেপি-র প্রার্থী হয়ে জেলা পরিষদ নির্বাচনে জেতেন। সূত্রের খবর, ফের দল বদলের প্রক্রিয়া শুরু হয় গত বৃহস্পতিবার থেকে।

কলকাতায় প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক হয় তাঁর। এরপরেই চুড়ান্ত হয়ে যায় দল বদলের সিদ্ধান্ত। বাকি চিত্রনাট্য যেন সাজানোই ছিল । তৃণমূল ভবনে গিয়ে শশী পাঁজার হাত থেকে দলের পতাকা গ্রহণ করেন উজ্জ্বল চৌধুরী৷ এরপর দুপুরেই প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষনা করেন খোদ দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

উজ্জ্বল চৌধুরীর দাবি বিজেপি-তে গিয়ে যোগ্য সম্মান পাচ্ছিলেন না৷ মানুষের জন্য কাজ করার ক্ষেত্রেও সমস্যা তৈরি হয়েছিল। এই কারণেই দল বদল তাঁর। এদিকে উজ্জ্বল বাবুর দলত্যাগে অস্বস্তিতে বিজেপি নেতৃত্ব । দল ত্যাগের আগে পর্যন্ত জেলা বিজেপি সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মণ্ডল বলেন, মালদহ কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে তাঁর সম্ভবনা ছিল। ফলে দলত্যাগের বিষয় মানতে কষ্ট হচ্ছে। দলে কাজের সুযোগ পাচ্ছিলেন না এমন অভিযোগ সঠিক নয় ।

(সেবক দেবর্শমা)

Published by:Subhapam Saha
First published:
0