corona virus btn
corona virus btn
Loading

ছাদহীন বাথরুমে তরুণীর স্নানের ছবি তোলার অভিযোগ, প্রতিবাদ জানালে ধর্ষণের হুমকি

ছাদহীন বাথরুমে তরুণীর স্নানের ছবি তোলার অভিযোগ, প্রতিবাদ জানালে ধর্ষণের হুমকি
নিজস্ব চিত্র

ছাদহীন বাথরুমে তরুণীর স্নান করার ছবি ক্যামেরাবন্দী করেছিল পাশের বাড়ির দুই যুবক।

  • Share this:

#কলকাতা: ছাদহীন বাথরুমে তরুণীর স্নান করার ছবি ক্যামেরাবন্দী করেছিল পাশের বাড়ির দুই যুবক। পরিবারের লোক প্রতিবাদ করতেই ব্যাপক মারধর। দুই নাবালিকাকে জোর করে দরজা বন্ধ করে শ্লীলতাহানিও করে অভিযুক্তরা। ঘটনার পর ৭ অভিযুক্ত গ্রেফতার হলেও এখনও ফেরার ৫ থেকে ৬ জন। ধর্ষণ করে বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ারও হুমকি দেওয়া চলছে। ঘটনায় পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস পুলিশ সুপারের।

সপ্তমীর দিন নিজের বাড়ির বাথরুমে চান করতে গিয়ে ভয়াবহ অভিজ্ঞতার স্বাক্ষী থাকতে হল তরুণীকে। আর্থিক কারণে বাথরুমের ছাদ তৈরি করতে পারেনি কেশিয়াড়ির খাজরার পরিবারটি। ছাদহীন সেই বাথরুমে স্নান করার সময়ই তরুণীর ছবি ক্যামেরাবন্দী করে পাশের বাড়ির ২ যুবক। বিষয়টি জেনে তরুণীর পরিবার প্রতিবাদ করতে যেতেই আক্রমণ। লাঠি, বাঁশ, টাঙ্গি নিয়ে চড়াও হয় অভিযুক্তরা।

মারধর চলার মধ্যেই দুই নাবালিকাকে ঘরের মধ্যে বন্ধ করে শ্লীলতাহানি করে অভিযুক্ত কয়েকজন যুবক। যৌন হেনস্থা করে ধর্ষণের হুমকিও দেওয়া হয়

অভিযুক্তদের মারে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় পরিবারের ৫ সদস্যকে।

বোনকে বাঁচাতে এসে কার্যত মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরেছেন তরুণীর দাদা। লোহার রড মারা হয় তরুণীর দাদাকে। অভিযোগ দায়েরের পর ৫ অভিযুক্ত গ্রেফতার হলেও ৫ থেকে ৬ জন এখনও ফেরার। নতুন সমস্যায় জর্জরিত পরিবার।

অভিযোগ তুলে না দিলে পরিবারের মেয়েদের ধর্ষণ, বাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ। নিগৃহীতা তরুণীর পরিবার গ্রাম ছাড়ার কথাও ভাবছে। যদিও জেলার পুলিশ সুপার শুধুমাত্র আশ্বাসই দিয়েছেন। কিন্তু আতঙ্ক কাটছে না ওই পরিবারের।

এমনকী অভিযুক্তদের গ্রেফতার করতে না পারায় পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভও বাড়ছে গ্রামবাসীদের।

First published: October 20, 2017, 9:01 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर