• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • পণের দাবিতে দুই মহিলাকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ

পণের দাবিতে দুই মহিলাকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ

পণের দাবিতে দুই মহিলাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ শ্বশুড়বাড়ির বিরুদ্ধে। পৃথক দুটি ঘটনা ঘটেছে হাওড়া ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরে।

পণের দাবিতে দুই মহিলাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ শ্বশুড়বাড়ির বিরুদ্ধে। পৃথক দুটি ঘটনা ঘটেছে হাওড়া ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরে।

পণের দাবিতে দুই মহিলাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ শ্বশুড়বাড়ির বিরুদ্ধে। পৃথক দুটি ঘটনা ঘটেছে হাওড়া ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #হাওড়া: পণের দাবিতে দুই মহিলাকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ শ্বশুড়বাড়ির বিরুদ্ধে। পৃথক দুটি ঘটনা ঘটেছে হাওড়া ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরে। গুরুতর জখম দুই মহিলার অবস্থাই আশঙ্কাজনক।

    বছর পাঁচেক আগে মীনার সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল ঘুসুরির জে এন মুখার্জি রোডের বাসিন্দা নীতিশ জয়সওয়ালের। মীনার পরিবারের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই পণের জন্য অশান্তি করত পেশায় ব্যবসায়ী নীতিশ। মাস দেড়েক আগে শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতনের অভিযোগ আনেন মীনা। তারপর থেকেই অভিযোগ তুলে নেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে নীতিশের পরিবার। শুক্রবার আলোচনার জন্য শ্বশুরবাড়িতে ডেকে পাঠানো হয় মীনাকে। সেখানেই অশান্তি চরমে উঠলে, তার গায়ে তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

    মীনার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে মীনার শ্বশুর জয়প্রকাশ জয়সওয়ালকে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক নীতিশ জয়সওয়াল।

    দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বিষ্ণুপুরের ষষ্ঠীতলায় বছর দুয়েক আগে অনির্বাণ মণ্ডলরে সঙ্গে বিয়ে হয় প্রিয়াংকা মণ্ডলের। প্রিয়াংকার বাড়ির লোকের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই পণের দাবিতে চাপ বাড়ছিল। সম্প্রতি ৫০ হাজার টাকা নিয়ে আসার জন্য চাপ দিচ্ছিল অনির্বাণ মণ্ডল। বুধবার এই বিষয়ে অশান্তি চলছিল স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে। অশান্তি চরমে উঠলে, গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয় বলে অভিযোগ। প্রতিবেশীরাই উদ্ধার করে আমতলা হাসপাতালে ভর্তি করে ওই মহিলাকে। পরে অবস্থার অবনতি হলে কলকাতায় নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অনির্বাণ ও তার পরিবারের সদস্যরা।

    First published: