Home /News /south-bengal /
আগুনে ঝলসে যাওয়া মা ও কন্যা সন্তানের দেহ উদ্ধার নদিয়ায়

আগুনে ঝলসে যাওয়া মা ও কন্যা সন্তানের দেহ উদ্ধার নদিয়ায়

ছবিটি প্রতীকী

ছবিটি প্রতীকী

মৃত গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, গত পাঁচ বছর আগে দেখাশোনা করে বীরনগর এলাকার এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয় রুমার। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন কারণে মেয়েকে মারধর করা হত। সেই রকমই গত পরশু অর্থাৎ সোমবার দুপুরে সোনার একটি কানের দুল নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে গণ্ডগোল চরমে ওঠে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #তাহেরপুর: অগ্নিদগ্ধ মৃত মা এবং তার দু বছরের কন্যাসন্তানের দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য। ঘটনাটি নদিয়ার তাহেরপুর থানার কামগাছি উত্তরপাড়া গ্রামের। মৃত গৃহবধুর নাম রুমা দাস(২৫) ও তার দু বছরের কন্যা সন্তান নাম রিয়া।

    মৃত গৃহবধূর পরিবারের অভিযোগ, গত পাঁচ বছর আগে দেখাশোনা করে বীরনগর এলাকার এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয় রুমার। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন কারণে মেয়েকে মারধর করা হত। সেই রকমই গত পরশু অর্থাৎ সোমবার দুপুরে সোনার একটি কানের দুল নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে গণ্ডগোল চরমে ওঠে। ওই দিন স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুন করার চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ।

    পরে ওই গৃহবধূর মা আন্না সরকার নিজের বাড়ি উত্তরপাড়া গ্রামে মেয়ে ও দু'বছরের নাতনিকে নিয়ে আসেন। এরপর আজ সকাল ৯টা নাগাদ স্থানীয় বাসিন্দারা উত্তরপাড়া গ্রামে মায়ের ওই ঘর থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখেন। তারপর গ্রামবাসীদের চেষ্টায় আগুন নেভানো সম্ভব হয়। ওই ঘরে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ অবস্থায় ছিল।

    অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় মৃত্যু হয় মা এবং তার দু বছরের শিশু কন্যার। মৃতার পরিবারের অভিযোগ, স্বামীর অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে সম্ভবত গায়ে আগুন দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে মেয়ে। দেহ দুটি তাহেরপুর থানার পুলিশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের পাঠায়। থানায় লিখিত অভিযোগ না হলেও, পুলিশ মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখছে।

    Published by:Arindam Gupta
    First published:

    Tags: Burnt Alive, Murder, Suicide

    পরবর্তী খবর