Home /News /south-bengal /
Purulia train driver saves a woman: রেল লাইনের উপরে শুয়ে মহিলা, চলে এলো মালগাড়ি, পুরুলিয়ায় কী কাণ্ড!

Purulia train driver saves a woman: রেল লাইনের উপরে শুয়ে মহিলা, চলে এলো মালগাড়ি, পুরুলিয়ায় কী কাণ্ড!

মহিলাকে ট্রেনের নীচ থেকে উদ্ধার করছে রেল পুলিশ৷

মহিলাকে ট্রেনের নীচ থেকে উদ্ধার করছে রেল পুলিশ৷

আচমকা ব্রেক কষলে ট্রেনটি লাইনচ্যুত হওয়ার আশঙ্কা ছিল৷ ফলে ট্রেন থামতে থামতে সেটির নীচে পড়ে যান মহিলা৷

  • Share this:

    #ইন্দ্রজিৎ মণ্ডল, পুরুলিয়া: আত্মহত্যা করার জন্য রেল লাইনের উপরে শুয়ে পড়েছিলেন এক মহিলা৷ সেই সময়ই লাইন দিয়ে ছুটে আসছিল একটি মালগাড়ি৷ দূর থেকে মহিলাকে শুয়ে থাকতে দেখেই বিপদ আঁচ করেছিলেন মালগাড়ির চালক৷ শেষ পর্যন্ত তাঁর তৎপরতাতেই প্রাণে বাঁচলেন ওই মহিলা৷ তবে ট্রেনের চাকার নীচে পড়ে মহিলার একটি হাত কাটা গিয়েছে৷

    চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে পুরুলিয়ার আদ্রায়৷ জানা গিয়েছে এ দিন সকালে দক্ষিণ দক্ষিণ-পুর্ব রেলওয়ের আদ্রা ডিভিশনের আদ্রা চান্ডিল শাখায় গড়ধ্রুবেশ্বর - আনাড়া রেল স্টেশনের মাঝে এই ঘটনা ঘটে৷ মহুল গ্রাম সংলগ্ন রেল লাইনের উপরে আত্মহত্যা করার জন্য শুয়ে পড়েন এক মহিলা৷

    আরও পড়ুন: যুবতীর চুল টানছেন যুবক, হাওড়ায় দেখেও নির্বিকার পথচারীরা, দেখুন ভিডিও

    আশেপাশের কেউ মহিলাকে খেয়াল না করলেও ওই লাইন দিয়ে আসা একটি মালগাড়ির চালক দূর থেকে মহিলাকে লাইনের উপরে শুয়ে থাকতে দেখেন৷ সঙ্গে সঙ্গে ট্রেনের গতি কমিয়ে দিয়ে মহিলাকে সতর্ক করে হর্ন দিতে থাকেন তিনি৷ কিন্তু তাতেও মহিলা লাইনের উপর থেকে সরেননি৷

    আরও পড়ুন: একেবারে আলাদা ভূমিকায় পুলিশ সুপার, মন জিতে নিলেন সকলের

    আচমকা ব্রেক কষলে ট্রেনটি লাইনচ্যুত হওয়ার আশঙ্কা ছিল৷ ফলে ট্রেন থামতে থামতে সেটির নীচে পড়ে যান মহিলা৷ কাটা যায় তাঁর হাতের একটি অংশ৷ ট্রেন থামিয়ে সঙ্গে সঙ্গে মালগাড়ির চালক আনাড়া স্টেশনের আরপিএফ পোস্টে খবর দেন৷ এর পর রেল পুলিশ এসে গুরুতর আহত অবস্থায় মহিলাকে উদ্ধার করে রঘুনাথপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়৷ সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি৷

    জানা গিয়েছে, ওই মহিলা আদ্রারই শ্যামপুর গ্রামের বাসিন্দা৷ তাঁর কিছু মানসিক সমস্যাও ছিল৷ পারিবারিক অশান্তিও লেগে থাকত বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা৷ সেই কারণেই সম্ভবত মহিলা আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন৷ যদিও মালগাড়ি চালকের তৎপরতায় প্রাণে বাঁচলেন তিনি৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    পরবর্তী খবর