কানে হেডফোন লাগিয়ে রেল লাইনে বসে PUBG গেম, ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হল দুই যুবকের

কানে হেডফোন লাগিয়ে রেল লাইনে বসে PUBG গেম, ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হল দুই যুবকের

চালক বারবার হর্ন বাজালেও কানে হেডফোন থাকায় কোনও হুঁশ ছিল না। যার পরিণতি মর্মান্তিক ভাবে প্রাণ গেল দুই যুবকের।

  • Share this:

#দিঘা: মোবাইলে অনলাইনে গেম খেলতে গিয়ে এতটাই মত্ত হয়ে গিয়েছিল তারা যে খেয়ালই হয়নি কখন ছুটে এসেছে দ্রুতগামী ট্রেন। চালক বারবার হর্ন বাজালেও কানে হেডফোন থাকায় কোনও হুঁশ ছিল না। যার পরিণতি মর্মান্তিক ভাবে প্রাণ গেল দুই যুবকের।

বুধবার বছরের শুরুর দিনে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগর থানার দিঘা-তমলুক রেল লাইনের ওপর। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। রেল পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সন্ধ্যে নাগাদ দিঘা তমলুক রেল লাইনের বিরামপুরের কাছে ট্রেন লাইনের ওপর বসে মোবাইলে গেম খেলায় মেতে উঠেছিল বিরামপুরের বাসিন্দা অপূর্ব দাস ও ফতেপুরের সুব্রত পাত্র।

দু'জনের কানেই ছিল হেডফোন। তাদের বয়স ১৮ এবং ২০ বছর। ঠিক সেই সময় দিঘা থেকে হাওড়ার উদ্দেশ্যে ছুটে আসছিল কান্ডারী এক্সপ্রেস ট্রেন। আচমকাই রেল ট্রাকের ওপর দুই যুবককে দেখতে পেয়ে চালক বারেবারে হর্ন বাজাতে থাকে। তারপরে সজোরে ব্রেক কষে। কিন্তু ততক্ষণে ট্রেনের ধাক্কায় ছিটকে পড়েছে তারা। ক্ষতবিক্ষত হয়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায় তাঁরা। এই ঘটনার পরে দাঁড়িয়ে পড়ে ট্রেনটিও। খবর পেয়ে তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে ছুটে আসে দিঘা জিআরপি পুলিশ। তাঁরা এসে মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়ার পর পুনরায় ট্রেনটি তার গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। স্থানীয়দের দাবি, ওই দুই যুবক নিয়মিত মোবাইল গেম খেলায় আসক্ত হয়ে উঠেছিল। প্রায়শই মোবাইলে কথা বলতে বলতে গেম খেলত তারা। সেই মোবাইল গেম খেলাই এদিন কাল হল বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

First published: 02:17:47 PM Jan 02, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर