Home /News /south-bengal /

Purulia: লাফিয়ে বাড়ছে করোনা, সোমবার থেকে বন্ধ পুরুলিয়ার পর্যটন কেন্দ্রগুলি

Purulia: লাফিয়ে বাড়ছে করোনা, সোমবার থেকে বন্ধ পুরুলিয়ার পর্যটন কেন্দ্রগুলি

সোমবার থেকে পুরুলিয়ার পর্যটন কেন্দ্রগুলি বন্ধ করে দেওয়া হল পর্যটকদের জন্য। পর্যটক, যাঁরা ইতিমধ্যেই পুরুলিয়া এসে পড়েছিলেন, তাঁদের মন খারাপ! কেউ ফিরছেন বাড়ি, কেউ আবার হোটেলবন্দি।

  • Share this:

    #পুরুলিয়া: ফের ভয়াবহ আকার নিয়ে করোনা! লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা! আজ, সোমবার থেকে পুরুলিয়ার পর্যটন কেন্দ্রগুলি বন্ধ করে দেওয়া হল পর্যটকদের জন্য। পর্যটক, যাঁরা ইতিমধ্যেই পুরুলিয়া এসে পড়েছিলেন, তাঁদের মন খারাপ! কেউ ফিরছেন বাড়ি, কেউ আবার হোটেলবন্দি। ইতিমধ্যেই হোটেলগুলির আগাম বুকিং ক্যানসেল করছেন বহু পর্যটক। একদিকে যেমন মন খারাপ পর্যটকদের, তেমনি মন খারাপ হোটেল ব্যবসায়ীদের। করোনার থাবায় ফের একবার মুখ থুবড়ে পড়ল পর্যটন শিল্প!

    আরও পড়ুন: সাতটা বাজলেই বন্ধ লোকাল, অফিসে ৫০ শতাংশ কর্মী, কাল থেকে কড়া বিধিনিষেধ রাজ্যে

    করোনার বাড়বাড়ন্তে সিঁদুরে মেঘ গোটা দেশে। কোভিড সংক্রমণ লাফিয়ে বাড়ছে বাংলাতেও (Coronavirus Update Bengal)। এই পরিস্থিতিতে আগেভাগেই লাগাম শক্ত করছে রাজ্য সরকার। বর্তমান কোভিড ও ওমিক্রনের কথা মাথায় রেখেই রবিবার নবান্ন থেকে ঘোষণা করা হল একগুচ্ছ বিধিনিষেধের (West Bengal Covid Restrictions), যা লাগু হয়েছে  আজ, সোমবার থেকেই। সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যসচিব জানিয়ে দেন, সোমবার থেকে রাজ্যে সব স্কুল-কলেজ বন্ধ, খোলা যাবে না জিম, সেলুন, পার্ক, সুইমিংপুল। সোমবার থেকে রাজ্যের সমস্ত লোকাল ট্রেন (Local Trains) পঞ্চাশ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে৷ তবে সন্ধে সাতটার পর  লোকাল ট্রেন চলাচল করবে না৷ মেট্রোও চলবে পঞ্চাশ শতাংশ যাত্রী নিয়ে৷ তবে তা স্বাভাবিক সূচি অনুযায়ীই চলবে৷ তবে দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবা আপাতত স্বাভাবিকই থাকছে৷

    আরও পড়ুন: বিধিনিষেধ উধাও! লোকাল ট্রেনে ৫০ শতাংশ যাত্রী? 'হাস্যকর' বলছেন নিত্যযাত্রীরা...

    কলকাতায় বিভীষিকাময় চিত্র করোনার! লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। নীল রতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসক, জুনিয়র চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী সহ মোট আক্রান্ত ৭০। গতকাল রাত পর্যন্ত ৫৮ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। আজ, সোবার সকালে এখনও পর্যন্ত আরও ১২ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। শহরের অন্যান্য হাসপাতালেও করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীরা। রিজিওনাল ইনস্টিটিউট অব অপথালমোলজিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১২। ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে অধ্যক্ষ-সহ আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬ জন। বেলেঘাটা আইডি এবং বিধি হাসপাতালে আক্রান্ত ২ জন। কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে আক্রান্তের সংখ্যা এই মুহূর্তে ১৯। আর আহমেদ ডেন্টাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আক্রান্ত ২২ জন চিকিৎসক করণা সংক্রমণে সংক্রমিত হয়েছে। রাজ্যের সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল এসএসকেএম হাসপাতালে আক্রান্তের সংখ্যা ১২। এছাড়াও চিত্তরঞ্জন ক্যান্সার হসপিটালেও আক্রান্ত হয়েছেন বেশ কয়েকজন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী । একের পর এক হাসপাতালের চিকিৎসক স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনায় সংক্রমিত হওয়ায় উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর। ভার্চুয়াল মাধ্যমে জরুরি বৈঠকে বসেছেন দফতরের কর্তারা।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Purulia

    পরবর্তী খবর