Home /News /south-bengal /
পঞ্চায়েত হিংসায় বলির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৭

পঞ্চায়েত হিংসায় বলির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৭

Photo: News 18

Photo: News 18

পঞ্চায়েত নির্বাচনকে ঘিরে হিংসায় বলির সংখ্যা ক্রমে বেড়েই চলেছে ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: রাজ্যে পঞ্চায়েত নির্বাচনকে ঘিরে হিংসায় বলির সংখ্যা ক্রমে বেড়েই চলেছে ৷ গতবারের তুলনায় এবছর হিংসার পরিমাণ কম হয়েছে বলে রাজ্য পুলিশের পক্ষ থেকে যতোই দাবি করা হোক না কেন ৷ সোমবার নির্বাচনের দিন নানা জেলা থেকে বিভিন্ন সময়ে সংঘর্ষের খবর এসেছে ৷ রায়গঞ্জে এক তৃণমূল সমর্থকের মৃত্যুর পাশাপাশি মালদহের বৈষ্ণবনগরে এক তৃণমূল সমর্থককে গুলি করে খুন করা হয়েছে বলে খবর ৷ এই ঘটনায় অভিযোগের তির কংগ্রেসের দিকে ৷ সবমিলিয়ে রাজ্যে মৃতের সংখ্যা এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭-তে ৷

    এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার মন্দিরবাজারে কুপিয়ে গুলি করে খুন করা হয় নির্দল সমর্থককে। মৃতের নাম খোকন বৈদ্য। অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। দুপুরে ভোটকে কেন্দ্র করে শুরু হয় গন্ডগোল, বোমাবাজি। ভোটের লাইনে ছিলেন খোকন। তারপর থেকেই তাঁকে আর খুঁজে পাওয়া যায় নি। পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করে খোকনের পরিবার। সন্ধ্যায় খোকনের মৃতদেহ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। পুলিশ দেহ উদ্ধারে গেলে পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ শুরু হয়।

    হাবরায় ভোটের বলি ১ তৃণমূল কর্মী। বাণীপুরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে নিহত তৃণমূল কর্মী উজ্জ্বল শূর। সংঘর্ষে জখম হন আরও ২ জন।

    রায়গঞ্জে এদিন আরও ১ তৃণমূল সমর্থকের মৃত্যু হয়েছে। মারাইকুড়ায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। মৃতের নাম অমৃত সাহা। সকালে ২৩৯ নং বুথে দুষ্কৃতীরা হামলা চালায়। গুলিবিদ্ধ হন অমৃত সাহা। অমৃতকে রায়গঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয় ৷

    ভোটে উত্তপ্ত নন্দীগ্রাম ৷ গোপালপুর ৪০ নম্বর বুথে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে দুই সিপিএম সমর্থকের ৷ নিহত দুই সিপিএম সমর্থকের নাম অপু মান্না এবং যোগেশ্বর ঘোষ ৷ ভোট চলাকালীন গণ্ডগোল শুরু হয় ৷ শাসক এবং বিরোধী দলের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয় ৷ বুথ দখলে চলে বোমা গুলিও৷

    দক্ষিণ দিনাজপুরেও মৃত্যু হয়েছে শাসক দলের এক সমর্থকের ৷ এক্ষেত্রেও অভিযোগের তির শাসক দলের বিরুদ্ধে ৷ তপন ঘোষ নামের ওই সমর্থকের বোমার আঘাতে মৃত্যু হয়েছে বলে খবর ৷

    কোচবিহারে বিজেপি কর্মী দুলাল ভৌমিকের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ৷ অভিযোগের তির শাসক দলের বিরুদ্ধে ৷

    নদিয়ার তেহট্টেতেও খুন হয়েছেন এক তৃণমূল কর্মী ৷ নিহতের নাম তয়বুর গাইন ৷ কুশমণ্ডির কাটাবাড়িতে গুলিতে মৃত্যু এক যুবকের ৷ মৃত যুবকের নাম বিশু টুডু ৷ বিজেপি কর্মী বিশুর বুকে গুলি লাগে ৷ গঙ্গারামপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয় ৷

    সকাল ৭ থেকে এদিন শুরু হয় ভোট গ্রহণ পর্ব ৷ সকাল থেকেই উত্তপ্ত মুর্শিদাবাদের নওদার বিভিন্ন বুথে অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা ৷ ভোটারদের ভয় দেখানোর অভিযোগ উঠেছে ৷ ওয়ান শটার, পিস্তল নিয়ে দুষ্কৃতীরা বুথের আশপাশে এদিন ঘুরে বেড়িয়েছে বলে অভিযোগ ৷ মুর্শিদাবাদের নওদায় নির্দল সমর্থককে গুলি করে খুনের অভিযোগ ওঠে ৷ আমতলার পাটকেবাড়িতে খুন করা হয়েছে তাকে ৷ অভিযোগের তির শাসকদলের বিরুদ্ধেই ৷ নিহতের নাম সইদ শেখ ৷

    নাকাশিপাড়ায় খুন করা হয় এক তৃণমূল কর্মীকে ৷ বোমার আঘাতে খুন হন ওই তৃণমূল কর্মী ৷ অভিযোগ সিপিএমের বিরুদ্ধে ৷ নিহত ব্য়ক্তির নাম আনসার শেখ ৷

    আমডাঙায় বোমা ফেটে মৃত্যু হয়েছে এক সিপিএম কর্মীর ৷ বোমা নিয়ে যাওয়ার সময়ে বোমা ফেটে মৃত্যু হয়েছে তার ৷ মৃত সিপিএম কর্মীর নাম তৈমুর ৷ সিপিএম কর্মীর মৃত্যুতে উদ্বিগ্ন কমিশন। সরকারের দেওয়া কোনও আশ্বাসই কাজ করছে না। ঘনিষ্ঠ মহলে হতাশা প্রকাশ করলেন নির্বাচন কমিশনার অমেরন্দ্র সিং ৷ আমডাঙ্গার মৃত্যু নিয়ে রিপোর্টও চেয়েছে কমিশন ৷

    অপরদিকে, কুলতলির মেরিগঞ্জে টিএমসি এবং এসইউসি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ চরমে বাধে এদিন ৷ মৃত টিএমসি সমর্থকের নাম আরিফ আলি গাজি ৷ গুলি করে খুন করা হয়েছে তাকে ৷ এমনটাই দাবি শাসকদের ৷ 

    বেলডাঙার সুজাপুরে বিজেপি কর্মী তপন মণ্ডল খুন ৷ বোমার আঘাতে খুন বিজেপি কর্মী ৷ অভিযোগের তির তৃণমূলের বিরুদ্ধে ৷ যদিও শাসক দল এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে ৷

    শান্তিপুরে নিহত হন তৃণমূল কর্মী সঞ্জিত প্রামাণিক ৷ দুষ্কৃতীদের আক্রমণে মৃত্যু হয় তৃণমূল কর্মীর ৷ একইসঙ্গে ৩ তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ ৷ হাসপাতালে মৃত্যু হয় সঞ্জিত প্রামাণিকের ৷ বাকিরা শান্তিপুর স্টেট জেনারেলে ভর্তি রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে ৷ বিজেপি এবং সিপিএমের যৌথ হামলাতেই মৃত্যু হয়েছে এক তৃণমূল কর্মীর ৷

    First published:

    Tags: Death, Panchayat Election 2018, Total Number Of Deaths, West Bengal Election

    পরবর্তী খবর