CoronaVirus: মুরগির দেহের ময়না তদন্ত, কী রিপোর্ট এল তাতে?

CoronaVirus: মুরগির দেহের ময়না তদন্ত, কী রিপোর্ট এল তাতে?
সংগৃহীত ছবি

পোলট্রি মুরগির ফার্মে পরপর মুরগি মারা যাওয়ার জেরে আতঙ্ক ছড়িয়েছিল।

  • Share this:

#নানুর: করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা দেশ। সাধারণ মানুষের মধ্যে ভয় এতটাই গেঁথে গিয়েছে, যে মুরগির মাংস ছুঁয়ে দেখছেন না অনেকেই। তারমধ্যেই নতুন আতঙ্ক বীরভূমে।

বীরভূমের নানুরের রামকৃষ্ণপুর। পোলট্রি মুরগির ফার্মে পরপর মুরগি মারা যাওয়ার জেরে আতঙ্ক ছড়িয়েছিল স্থানীয় পোলট্রী ফার্ম লাগোয়া গ্রামবাসীদের মধ্যে। তার সঙ্গে আতঙ্ক বেড়েছিল ওই পোলট্রি ফার্মের মালিক সেখ জাফারুল্লার।

তবে তাঁর প্রথম থেকেই সন্দেহ হয়েছিল বার্ড ফ্লুর জেরে মারা যাচ্ছে এত মুরগি। মৃত্যুর কারণ জানতে আতঙ্কিত পোলট্রি ফার্মের মালিক জাফারুল্লা আবেদন করেন নানুরের বিডিওর কাছে। এরপর স্থানীয় প্রাণী সম্পদ বিকাশ দফতরের লোকজন গিয়ে ওই ফার্ম থেকে চারটি মরা মুরগি সংগ্রহ করে এবং বীরভূমের সিউড়ীতে জেলা প্রানী স্বাস্থ্য দফতরে ওই মরা মুরগি গুলিকে পাঠায় ময়না তদন্তের জন্য।

ময়না তদন্তের পর নানুরের বিডিও এবং ওই পোলট্রি ফার্মের মালিককে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে মুরগি গুলির মৃত্যু হয়েছে CCRD অর্থাৎ কমপ্লিকেটেড ক্রনিক রেসপেরেটরি ডিজিজ-এ। স্বাভাবিক কারণেই মৃত মুরগীগুলির শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা হয়েছিল, যা ওই ফার্মে দেখভালের সমস্যার জন্যই তৈরী হয়েছিল। যার সঙ্গে কোন রোগ বা বার্ড ফ্লুয়ের সম্পর্ক নেই।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পর চিন্তামুক্ত গ্রামবাসী থেকে পোল্ট্রি ফার্মের মালিক। প্রানী স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে কোনও রকম গুজবে কান না দিতে,  দরকারে বা সমস্যায় জেলার প্রানী বন্ধু বা প্রানী সম্পদ দফতরে যোগাযোগ করতে।

Supratim Das

First published: March 6, 2020, 7:02 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर