Home /News /south-bengal /
কেষ্টর কেরামতি, পঞ্চায়েত ভোটের আগেই বীরভূম জিতে নিল তৃণমূল

কেষ্টর কেরামতি, পঞ্চায়েত ভোটের আগেই বীরভূম জিতে নিল তৃণমূল

File Photo

File Photo

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বীরভূম জেলা পরিষদে জয়ী তৃণমূল। ৪২টি আসনের মধ্যে ৪১ টি আসনেই জয়ী তৃণমূল।

  • Share this:

    #বীরভূম: বেনজির কাণ্ড বীরভূমে। ভোটের আগেই বীরভূম জেলা পরিষদ তৃণমূলের দখলে। জেলার অধিকাংশ পঞ্চায়েত সমিতি ও গ্রাম পঞ্চায়েতও তৃণমূলের দখলে। নজিরবিহীনভাবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় রাজ্যে জেলা পরিষদ দখল করল কোনও রাজনৈতিক দল। বীরভূমে ভালো ফলের জন্য ঝাঁপালেও বড় ধাক্কা গেরুয়া শিবিরের।

    ভোটের ফলঘোষণার পরেই সাধারণত দেখা যায় এই দৃশ্য। বীরভূম ঠিক উলটো পথে হাঁটল। মনোনয়ন পত্র জমার শেষ দিনেই বীরভূমে জয়পতাকা ওড়াল তৃণমূল কংগ্রেস। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেলা পরিষদ দখল করল তৃণমূল। এমন নজির অতীতে নেই। পঞ্চায়েত সমিতি ও গ্রাম পঞ্চায়েতের ছবিটাও প্রায় একই।

    প্রথম থেকে এই জেলাকে টার্গেট করেও কাজের কাজ করতে ব্যর্থ গেরুয়া শিবির। প্রার্থী দেওয়ার আগেই লড়াইয়ের ময়দান ছাড়তে হয়েছে বিরোধীদের। মোট জেলা পরিষদ - ৪২ লড়াই হচ্ছে - ১ টি আসনে ৪১ আসনে প্রার্থী শুধু তৃণমূলের শুধু রাজনগরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে পঞ্চায়েত সমিতি -- কার্ড মোট পঞ্চায়েত সমিতি - ১৯ ১৪টি তৃণমূলের দখলে গ্রাম পঞ্চায়েত মোট গ্রাম পঞ্চায়েত - ১৬৭ লড়াই হচ্ছে - ৩৭ আসনে

    বীরভূমে বিরোধীদের মনোনয়ন পত্র জমা দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বারবার। সে সবকে অবশ্য পাত্তা দিতে নারাজ অনুব্রত মণ্ডল।

    এতকিছুর পরও ৯০ শতাংশ আসনেও প্রার্থী না দিতে পারাটা গেরুয়া শিবিরের কাছে বড় ধাক্কা। ভোটপর্ব শুরুর আগে বীরভূমে ছবিটা শাসকদলের আত্মবিশ্বাসও কয়েক গুণ বাড়িয়ে দেবে।

    তৃণমূলের জয়ে  রাহুল সিনহার জানিয়েছেন

    বাংলা এমন কলঙ্কিত কখনও হয়নি ৷ গ্রাম বাংলায় লুঠ হয়েছে ৷ মানুষের ক্ষোভ ভোটবাক্সে পড়বে ৷ মানুষে ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হল ৷ নির্বাচন প্রহসনে পরিণত হয়েছে ৷ কতগুলো গুন্ডা দিয়ে সন্ত্রাস চালানো হল ৷ মানুষের কাছে বিচার চাইব ৷

    First published:

    Tags: Birbhum, Panchayat Election 2018, South Bengal Panchayat Election 2018, South Bengal Panchayet election, TMC

    পরবর্তী খবর