দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ক্ষোভ প্রকাশের শাস্তি, দলে থাকলেও জিতেন্দ্রকে পুরোন পদে ফেরাবে না তৃণমূল

ক্ষোভ প্রকাশের শাস্তি, দলে থাকলেও জিতেন্দ্রকে পুরোন পদে ফেরাবে না তৃণমূল
Photo-দল ছাড়লেন জিতেন্দ্র৷
  • Share this:

#কলকাতা: বেশ কয়েকদিন নাটকের পর অবশেষে তৃণমূলেই থেকে গিয়েছিলেন৷ কিন্তু দলে থাকলেও সম্ভবত জিতেন্দ্র তিওয়ারির ডানা ছাঁটতে চলেছে তৃণমূল৷ দলের বিরুদ্ধে তোপ দেগে আসানসোল পুরনিগমের প্রশাসক এবং দলের জেলা সভাপতির পদ ছেড়েছিলেন জিতেন্দ্র৷ ওই দুই পদে তাঁকে আরও ফেরানো হবে না বলেই দলীয় সূত্রে খবর৷

গত ১৪ ডিসেম্বর থেকে তৃণমূলের সঙ্গে টানাপোড়েন শুরু হয় জিতেন্দ্র তিওয়ারির৷ ১৩ ডিসেম্বর তাঁর লেখা একটি চিঠি প্রকাশ্যে চলে আসে৷ যে চিঠিতে আসানসোলের অনুন্নয়নের জন্য রাজ্য সরকারকেই দায়ী করেন জিতেন্দ্র৷ এর পরেই প্রকাশ্যে পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের সঙ্গে প্রকাশ্য বিবাদে জড়িয়ে পড়েন তিনি৷ দলের অন্যান্য নেতাদের বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন তিনি৷ প্রথমে আসানসোল পুরনিগমের প্রশাসক এবং তার পর দলের জেলা সভাপতির পদও ছেড়ে দেনে তিনি৷ এমন কি, দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর সঙ্গে দেখা করার জন্য সময় দিলেও গত ১৭ ডিসেম্বর পদত্যাগ করেন জিতেন্দ্র৷ এর পরই তাঁর বিজেপি-তে যোগদানের সম্ভাবনা নিয়ে জোর জল্পনা শুরু হয়৷ কিন্তু জিতেন্দ্রর যোগদান নিয়ে প্রকাশ্যেই আপত্তি জানান বাবুল সুপ্রিয়র মতো বিজেপি নেতারা৷

পদত্যাগের চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই অবশ্য ভোল বদলে ফেলেন জিতেন্দ্র৷ কলকাতায় এসে মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের সঙ্গে বৈঠক করার পরই তৃণমূলে থেকে যাওয়ার কথা জানিয়ে দেন তিনি৷ ভুল বোঝাবুঝি মিটে গিয়েছে বলেও দাবি করেন জিতেন্দ্র৷

তবে তৃণমূলে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত জানালেও এখনই জিতেন্দ্রকে আগের মতো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ফেরাতে রাজি নয় দল৷ কারণ জিতেন্দ্রের বিরুদ্ধেও যে আসানসোল এবং পশ্চিম বর্ধমান জেলার একাংশে দলীয় নেতা-কর্মীদের একাংশের ক্ষোভ রয়েছে, তা তিনি পদত্যাগ করার পরই স্পষ্ট হয়ে যায়৷ ফলে এখনই জিতেন্দ্রকে সব পদ ফিরিয়ে দিলে দলের সেই অংশের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হতে পারে৷ শুধু তাই নয়, এমন হলে দলের অন্যান্য বিক্ষুব্ধ নেতারাও দলকে ব্ল্যাকমেল করা শুরু করতে পারেন৷ সূত্রের খবর, আসানসোল পুরসভায় এই মুহূর্তে প্রশাসক বোর্ডের যাঁরা সদস্য রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে থেকে কাউকেই প্রশাসক বোর্ডের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে৷ জেলা সভাপতি হিসেবেও বেছে নেওয়া হতে পারে নতুন কাউকে৷ ফলে আপাতত জিতেন্দ্রকে কিছুটা চাপে রেখে পরীক্ষা করে নিতে চাইছে শাসক দলও৷

Venkateshwar Lahiri
Published by: Debamoy Ghosh
First published: December 26, 2020, 1:01 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर