যুব তৃণমূলের অফিসে ব্যাপক ভাঙচুর, দলীয় পতাকা পোড়ানোর অভিযোগ, উত্তেজনা কালনায়

যুব তৃণমূলের অফিসে ব্যাপক ভাঙচুর, দলীয় পতাকা পোড়ানোর অভিযোগ, উত্তেজনা কালনায়
রাতের অন্ধকারে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের পার্টি অফিসে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর চালাল দুষ্কৃতীরা। সেখানে আগুন জ্বেলে দলীয় পতাকা পুড়িয়েও দেওয়া হয়।

রাতের অন্ধকারে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের পার্টি অফিসে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর চালাল দুষ্কৃতীরা। সেখানে আগুন জ্বেলে দলীয় পতাকা পুড়িয়েও দেওয়া হয়।

  • Share this:

#কালনা: রাতের অন্ধকারে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের পার্টি অফিসে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর চালাল দুষ্কৃতীরা। সেখানে আগুন জ্বেলে দলীয় পতাকা পুড়িয়েও দেওয়া হয়। পূর্ব বর্ধমানের কালনার সাতগাছিয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে। আজ বুধবার সকালে বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দেয়। তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে। অবিলম্বে ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে তারা। অন্যদিকে বিজেপির দাবি, তাদের কেউ এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাপা উত্তেজনা রয়েছে। অশান্তি রুখতে এলাকায় পুলিশি টহল চলছে।

কালনা দু নম্বর ব্লকের সাতগাছিয়ার তৃণমূল যুব কংগ্রেসের পার্টি অফিসে রাতের অন্ধকারে ভাঙচুর করে পতাকা পোড়ানোর হয় বলে অভিযোগ। কালনা থানার অন্তর্গত সাতগাছিয়ার মাঠের পাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। আজ সকালে পার্টি অফিসে ঢুকতে গিয়ে বিষয়টি কর্মীদের নজরে আসে। কর্মীরা বলেন, অফিসের ভেতরের সব জিনিস ভাঙচুর করা হয়েছে। দলীয় পতাকা পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এর পরই কালনা থানার দ্বারস্থ হয় তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা। বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে কালনা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে তারা।

স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তাপস কুমার সরকার বলেন, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে আমাদের অনুমান। পার্টি অফিসে ঢুকে আসবাবপত্র টিভি সহ অন্যান্য সামগ্রী ভাঙচুর করে দুষ্কৃতীরা এরপর আগুন জ্বেলে দলীয় পতাকা এমনকি জাতীয় পতাকা পর্যন্ত পুড়িয়ে দেওয়া হয়। আজ সকালে বিষয়টি আমাদের কর্মীদের নজরে আসে।


যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। দলের কেউ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয় বলে দাবি করেছে তারা। স্থানীয় বিজেপি নেতা সুভাষ পাল বলেন, এই ধরনের জঘন্য কাজের সঙ্গে বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা কখনোই জড়িত থাকতে পারে না। এই সংস্কৃতি বিজেপির নয়। এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের পায়ের তলার মাটি সরে গিয়েছে। বাসিন্দাদের সমর্থন তাদের সঙ্গে নেই বুঝতে পেরেই নিজেরাই নিজেদের দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে বিজেপির নামে দোষ চাপাতে চাইছে।

Saradindu Ghosh

Published by:Shubhagata Dey
First published: