• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • গোষ্ঠীসংঘর্ষে উত্তপ্ত গড়বেতা, আহত অন্তত ২০ গ্রামবাসী

গোষ্ঠীসংঘর্ষে উত্তপ্ত গড়বেতা, আহত অন্তত ২০ গ্রামবাসী

গোষ্ঠীসংঘর্ষে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা। বৃহস্পতিবার থেকেই ফুলমণিপুর, উপরজোবা, একারিয়ার মতো গ্রামে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে ।

গোষ্ঠীসংঘর্ষে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা। বৃহস্পতিবার থেকেই ফুলমণিপুর, উপরজোবা, একারিয়ার মতো গ্রামে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে ।

গোষ্ঠীসংঘর্ষে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা। বৃহস্পতিবার থেকেই ফুলমণিপুর, উপরজোবা, একারিয়ার মতো গ্রামে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে ।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #গড়বেতা: গোষ্ঠীসংঘর্ষে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা। বৃহস্পতিবার থেকেই ফুলমণিপুর, উপরজোবা, একারিয়ার মতো গ্রামে দফায় দফায় সংঘর্ষ বাঁধে । দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত এক মহিলা সহ তিনজন। আহত দশ জনেরও বেশি।

    শুক্রবার বিশাল পুলিশ বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও, এখনও থমথমে এলাকা। একুশে জুলাই সমাবেশের প্রস্তুতিতে কেন্দ্র করে শাসক দলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ বাধে বলে অভিযোগ।

    প্রথমে ফুলমণিপুর এবং উপরজোবা। তারপর একারিয়া। বৃহস্পতিবার রাত থেকেই সংঘর্ষে উত্তপ্ত গড়বেতার একের পর এক গ্রাম। বৃহস্পতিবার রাতে প্রথম সংঘর্ষটি হয় ফুলমণিপুরে। দ্রুতই তা ছড়িয়ে পড়ে উপরজোবা গ্রামে। রাতেই পুলিশ গিয়ে কোনওমতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

    শুক্রবার সকালে ফের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি।এদিন উপরজোবা গ্রামে আলোক মণ্ডল নামে এক ব্যক্তিকে পুড়িরে মারে বিক্ষুব্ধরা। কিছুক্ষণের মধ্যেই শেরা মল্লিক নামে আরেক ব্যক্তিকে পিটিয়ে খুন করা হয় বলে অভিযোগ। সংঘর্ষে আহত হন কুড়ি জনেরও বেশি গ্রামবাসী। যাঁদের মধ্যে গুরুতর আহতদের ভরতি করা হয় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানেই প্রাণ হারান আসীমা বিবি নামে এক মহিলা।

    পরে জেলা পুলিশের বিশাল বাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, একুশে জুলাই সমাবেশের প্রস্তুতিকে ঘিরে বেশকিছুদিন ধরেই গন্ডগোল চলছিল শাসকদলের দুই গোষ্ঠীর। তাদের সংঘর্ষ চরম আকার নিতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গড়বেতা।

    First published: