'ভালবাসলে মানুষ এমনিই ভোট দেবে!' শুভেন্দুর জেলায় গিয়েও সহজ অঙ্ক দেবের

'ভালবাসলে মানুষ এমনিই ভোট দেবে!' শুভেন্দুর জেলায় গিয়েও সহজ অঙ্ক দেবের

মহিষাদলে দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে দেব৷

তৃণমূল সাংসদের এমন ঠান্ডা মাথায় প্রচার দেখে দলের প্রার্থীরা তো বটেই, দেবকে দেখতে আসা জনতাও যেন কিছুটা অবাক৷

  • Share this:

#মহিষাদল: চতুর্দিকে গরমাগরম কথার লড়াই৷ সবার মুখেই খেলা হবে৷ গরমাগরম কথা বলে কর্মী- সমর্থকদের কতটা তাতিয়ে দেওয়া যায়, নেতারা যেন সেই প্রতিযোগিতায় নেমেছেন৷ এই যখন রাজ্যের ভোট প্রচারের সার্বিক ছবি, সেখানে তিনি যেন ব্যতিক্রম৷ দেব ওরফে দীপক অধিকারীর সহজ হিসেব, 'ভালবাসলে মানুষ এমনিই ভোট দেবেন!'

বৃহস্পতিবার পূর্ব মেদিনীপুরের তিন জায়গায় দলীয় প্রার্থীদের হয়ে প্রচারে যান ঘাটালের তৃণমূল সাংসদ দেব৷ রোড শো-ও করেন তিনি৷ যদিও কোনও জায়গায় প্রতিপক্ষকে কুকথা বলা দূরে থাক, ন্যূনতম উত্তেজনাও দেখা যায়নি দেবের মধ্যে৷ যেদিন থেকে রাজনীতিতে এসেছেন, এটাই অবশ্য তাঁর সবথেকে বড় ইউএসপি৷ দেব যখন গতকাল মহিষাদল, খেজুরি, ভগবানপুরে প্রচার সারছেন, তখন ওই জেলারই নন্দীগ্রাম রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে৷ যদিও এ দিন প্রচারে গিয়ে চৈত্রের কাঠফাটা গরমেও দেব ছিলেন ঠান্ডা৷ এমন কি যাঁর পূর্ব মেদিনীপুরে গেলেই যাঁর বিরুদ্ধে তৃণমূল নেতারা ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন, সেই শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়েও বিশেষ বাক্যব্যয় করেননি তৃণমূল সাংসদ৷ বরং তাঁর মুখে শোনা গিয়েছে তৃণমূল সরকারের আমলের উন্নয়নের কথা৷

প্রচারে দেবকে ঘিরে উন্মাদনা৷

তৃণমূল সাংসদের এমন ঠান্ডা মাথায় প্রচার দেখে দলের প্রার্থীরা তো বটেই, দেবকে দেখতে আসা জনতাও যেন কিছুটা অবাক৷ প্রচারের ফাঁকে নিউজ ১৮ বাংলাকে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাৎকারে দেব বলেন, 'আমার কোনও রাজনৈতিক অ্যামিশান নেই৷ এত কথা বলে মনে হয় না ভোট পাওয়া যায়৷ যবে থেকে রাজনীতিতে এসেছি গরমাগরম কিছু বলিনি৷ আমার দল থেকে তো আমাকে সম্মান করাই হয়৷ বিরোধীরাও আমাকে সম্মান করে৷'

সাত বছর আগে যখন রাজনীতিতে এসেছিলেন, তখন তাঁর রাজনৈতিক পরিণতিবোধ নিয়ে কম কটাক্ষ হয়নি৷ আর এখন ঘাটালের তৃণমূল সাংসদের কথাই যেন অনেক পোড় খাওয়া নেতার কাছে শিক্ষণীয় হতে পারে৷ দেবের স্পষ্ট কথা, 'আমার এমন কিছু বলা উচিত নয় যাতে নিচুতলার কর্মীদের মধ্যে ঝগড়া লেগে যায়৷ কারণ নেতাদের কিছু হয় না৷ আর ঝগড়া হলে আমি যখন কাউকে বাঁচাতে পারব না তখন সেরকম কিছু বলার অধিকারও আমার নেই৷'

ভোট পাওয়ার জন্য তৃণমূল সাংসদের অঙ্কও খুব সহজ, সোজাসাপ্টা৷ তিনি বলেন, 'আমার কাজ ভোটে জেতা৷ মানুষকে ভালবাসলে এমনিই ভোট দেবে৷ তার জন্য প্রতিপক্ষকে ছোট করতে হবে, তাঁর বাবা- মাকে অপমান করতে হবে, এটা আমি বিশ্বাস করি না৷ যদি বলে খেলা হবে তাহলে তাই, কিন্তু সেই খেলার বাইরে আমরা বন্ধু৷ '

এ দিন প্রচারের ফাঁকেই মহিষাদল রাজবাড়িও ঘুরে দেখেন অভিনেতা সাংসদ৷ আর তাঁর ফাঁকেই বললেন, 'আমি কী বললাম, কোন নেতা কী বলছেন সেটা নয়, মানুষ কী বলছে সেটা সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ!' দেবের কথা কী বাকি নেতারাও শুনবেন?

Sujit Bhoumik

Published by:Debamoy Ghosh
First published: