আজ কাঁথিতে শক্তি দেখাবে তৃণমূল কংগ্রেস, মূল আয়োজনে অখিল গিরি

শুভেন্দুর দলবদল যে ভোটে বা সংগঠনে কোনও প্রভাব পড়বে না তা বারবার বলে আসছে তৃণমূল। এবার অধিকারী গড়ে তাদের দূরে সরিয়ে রেখে শাসক দল কি বার্তা দিতে চাইছে?

শুভেন্দুর দলবদল যে ভোটে বা সংগঠনে কোনও প্রভাব পড়বে না তা বারবার বলে আসছে তৃণমূল। এবার অধিকারী গড়ে তাদের দূরে সরিয়ে রেখে শাসক দল কি বার্তা দিতে চাইছে?

  • Share this:

#পূর্ব মেদিনীপুর: শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপি যোগদানের পরে আজ, বুধবার, তাঁর এলাকায় মিছিল ও সভা করবে তৃণমূল কংগ্রেস। অধিকারী গড়ে সভা। যদিও সেই সভা কার্যত অধিকারীদের বাদ রেখেই করা হচ্ছে। কাঁথি শহরের একাধিক জায়গায় রাস্তা জুড়ে পড়েছে নানা পোস্টার, ব্যানার। শুভেন্দু বা অধিকারী পরিবার ছাড়াও যে পূর্ব মেদিনীপুরে সভা করা যায়, লোক জমায়েত করা যায় সেই চ্যালেঞ্জ কার্যত ছুঁড়ে দেওয়া হল অধিকারী পরিবারের দিকে। আর এই সভার মূল আয়োজন করেছেন অখিল গিরি। যিনি জেলায় অধিকারী পরিবারের বিরোধী হিসেবে পরিচিত। সাথে হাজির হবেন সৌগত রায় ও ফিরহাদ হাকিম। সৌগত রায় যাকে তৃণমূল কংগ্রেস  দায়িত্ব দিয়েছিলেন মধ্যস্থতাকারী হিসেবে।

অন্যদিকে নন্দীগ্রাম দিবস যেখানে শুভেন্দুর পাল্টা সভা করেছিলেন রাজ্যের শাসক দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতা ও মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তবে মিছিলের আয়োজন দেখেই রাজনৈতিক মহলের ধারণা অধিকারী গড়ে ব্রাত্য অধিকারীরাই। কাঁথিতে হবে তৃণমূলের মিছিল ও সভা। যদিও সেখানে অনুপস্থিত থাকবেন না কাঁথির তৃণমূল সাংসদ। শিশির অধিকারী অবশ্য সভার নিমন্ত্রণ পেয়েছিলেন। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে তার পায়ের সমস্যা রয়েছে৷ বেশ কয়েকদিন ধরে তিনি কোনও রাজনৈতিক সভা বা অনুষ্ঠানেও যোগ দেননি৷ অন্যদিকে অধিকারী পরিবারের অপর সদস্য তথা তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী সভার আমন্ত্রণ পাননি বলে জানিয়েছেন তার ঘনিষ্ঠ মহলে। সভার দিন তিনি দিল্লিতে থাকবেন বলে তার ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন। ফলে দল না ছাড়লেও জেলায় থেকেও দলের সভায় থাকবেন না অধিকারী'রা।

শুভেন্দুর দলবদল যে ভোটে বা সংগঠনে কোনও প্রভাব পড়বে না তা বারবার বলে আসছে তৃণমূল। এবার অধিকারী গড়ে তাদের দূরে সরিয়ে রেখে শাসক দল কি বার্তা দিতে চাইছে? রাজনৈতিক মহলের ব্যাখ্যা, অধিকারী পরিবার ছাড়াও যে জয় হাসিল করতে পারা যায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় সেটাই বোঝাতে চায় তৃণমূল কংগ্রেস। এছাড়া অপর একটি মহলের ধারণা অধিকারী পরিবারের বিরুদ্ধ গোষ্ঠী হিসেবে পরিচিত অখিল গিরির হাতে আস্তে আস্তে জেলার ব্যাটন তুলে দিতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস। ফলে বুধবারের মিছিল ও সভা পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে তারা।

পিছিয়ে নেই শুভেন্দু অধিকারী। আগামীকাল, বৃহস্পতিবার, তিনিও নামছেন রাস্তায়। কাঁথিতে তিনি নিজে মিছিল করবেন। বিজেপিতে যোগদানের পরে এটাই হবে নিজের জেলায় তার প্রথম কর্মসূচী। এখন দেখার এই লড়াই কতটা জমে ওঠে। সূত্রের খবর, এখানেই থেমে থাকা নয়। তৃণমূল সুপ্রিমো নিজে আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় আসতে পারেন। সভা করতে পারেন নন্দীগ্রাম, কাঁথিতে। সব মিলিয়ে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে ফের গুরুত্ব বাড়ছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার।

Published by:Pooja Basu
First published: