Anubrata Mondal: 'নিখোঁজ' নজরবন্দি অনুব্রত মণ্ডল! বীরভূমজুড়ে খুঁজে বেড়াচ্ছে ম্যাজিস্ট্রেট-আধাসেনা

Anubrata Mondal: 'নিখোঁজ' নজরবন্দি অনুব্রত মণ্ডল! বীরভূমজুড়ে খুঁজে বেড়াচ্ছে ম্যাজিস্ট্রেট-আধাসেনা

'নিখোঁজ' অনুব্রত

কিছুক্ষণের মধ্যেই 'উধাও' হয়ে যায় অনুব্রতর গাড়ি। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্তও খোঁজ মেলেনি 'কেষ্ট দা'র।

  • Share this:

    #বীরভূম: নজরবন্দি হওয়ার পরদিনই 'উধাও' হয়ে গিয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal)। মঙ্গলবার বিকেল ৫টা থেকে ৩০ এপ্রিল, শুক্রবার সকাল ৭টা পর্যন্ত ‘নজরবন্দি’ থাকার কথা বীরভূমের (Birbhum TMC Leader) এই দাপুটে নেতার। কিন্তু বুধবার সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে তিনি যখন বাড়ি থেকে বেরোন, তাঁর গাড়ির সঙ্গেই ছিল ম্যাজিস্ট্রেট ও ৮ জন আধাসেনা। তাঁরা অবশ্য ছিলেন অন্য একটি গাড়িতে। কিন্তু কিছুক্ষণের মধ্যেই 'উধাও' হয়ে যায় অনুব্রতর গাড়ি। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্তও খোঁজ মেলেনি 'কেষ্ট দা'র।

    মঙ্গলবার কমিশন নজরবন্দি করার পরেও এক্কেবারে ভাবলেশহীন ছিলেন অনুব্রত। দুঁদে তৃণমূল নেতা জানিয়েছেন, তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরামর্শ মেনে সম্ভবত এদিনই আদালতের দ্বারস্থ হবেন তিনি। একইসঙ্গে জানিয়েছিলেন, 'খেলা হবে'। সেই 'খেলা'ই যেন শুরু করে দিলেন অনুব্রত।

    এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত যা জানা যাচ্ছে, লাভপুর থেকে আমোদপুরের দিকে যাচ্ছে অনুব্রত মণ্ডলের গাড়ি। সেদিকেই যাচ্ছেন কমিশনের আধিকারিকরাও। ২৯ এপ্রিল অর্থাৎ আগামীকালই বীরভূমে নির্বাচন (West Bengla Assembly Election Phase 8)। অষ্টম অর্থাৎ শেষ দফা নির্বাচনে স্বাভাবিকভাবেই কমিশনের পাখির চোখ বীরভূম। সবচেয়ে বেশি সংখ্যক কেন্দ্রীয় বাহিনীও মোতায়েন করা হয়েছে অনুব্রতর জেলায়। এমতাবস্থায় অন্যান্যবারের মতো এবারও অনুব্রত মণ্ডলকে ফের 'নজরবন্দি' করা হতে পারে, তা নিতে একপ্রকার জল্পনা ছিলই। সেই জল্পনার অবসান ঘটে মঙ্গলবার কমিশনের নির্দেশের পরেই।

    যদিও 'নজরবন্দি' হওয়ার পরে অনুব্রত বলে দিয়েছিলেন, "আমাকে নজরবন্দি করা কমিশনের রুটিন ডিউটি। ১৪ সালের খাতা খুলছে, রুটিনে যা আছে তাই করতে হবে। তবে ভাল হয়েছে। লাভই হয়েছে, কোনও লোকসান নেই। আমি যেখানে যাব, ওঁরা সঙ্গে ছুটবে। ফাইন খেলা হবে, যাঁরা সঙ্গে থাকবে গোলটা পাস করে দেবে। ভয়ঙ্কর খেলা হবে।' খেলা শুরু করে দিলেন অনুব্রত।

    Published by:Suman Biswas
    First published: