দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাঙ্গামাটির দেশে রাজনৈতিক লড়াই নয় ,সংস্কৃতির লড়াইয়ে তৃণমূল-বিজেপি

রাঙ্গামাটির দেশে রাজনৈতিক লড়াই নয় ,সংস্কৃতির লড়াইয়ে তৃণমূল-বিজেপি

চাপানউতোর শুরু হতেই বোলপুর থেকে পোস্টার সরে যায়।

  • Share this:

#শান্তিনিকেতন: কুড়ি ডিসেম্বর বোলপুর শান্তিনিকেতনে এসেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা অমিত শাহ। শান্তিনিকেতন ঘুরে দেখে তিনি বোলপুরের ডাকবাংলো ময়দান থেকে বোলপুর চৌরাস্তা পর্যন্ত একটি রোড শো করেন। ১৮ ই ডিসেম্বর রাত্রে অমিত শাহের ছবি নিচে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের ছবি তার নিচে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা অনুপম হাজরার ছবি এল সামনে! তা নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক৷ বিতর্কের মূল কারণ ছিল অমিত শাহের ছবির নিচে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের ছবি সামনে আসা নিয়ে। প্রশ্ন উঠেছিল, অমিত শাহ কত বড় মনীষী যে তাঁর ছবির নিচে রবীন্দ্রনাথকে স্থান দেওয়া হল? এভাবে যে আদতে রবীন্দ্রনাথ এবং গোটা বাঙালি জাতিকে অপমান করা হয়েছে সেই বক্তব্য উঠে এসেছিল শান্তিনিকেতন থেকে৷

শান্তিনিকেতনের প্রবীণা শ্রমিক সুপ্রিয় ঠাকুর, ঠাকুর পরিবারের সদস্য৷ তিনি জানান রবীন্দ্রনাথকে রাজনৈতিকভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে, যার সরাসরি প্রতিবাদ করেন তিনি৷ তিনি আরও জানান শান্তিনিকেতন রাজনীতির আখড়া তৈরি হয়েছে আর শান্তিনিকেতন এবং রবীন্দ্রনাথকে ব্যবহার করছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। তারপরেই বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয় এই পোস্টটার তারা লাগায়নি৷ বিজেপির বদনাম করার জন্যই উল্টে তৃণমূল এই পোস্টটা লাগিয়েছে, এমন অভিযোগ করে বিজেপি। তৃণমূল সরাসরি এই অভিযোগ অস্বীকার করে৷ তারা জানায় বহিরাগতরা রবীন্দ্রনাথের নামে নোংরামি করছে৷

চাপানউতোর শুরু হতেই বোলপুর থেকে পোস্টার সরে যায়। অমিত শাহ চলে যাওয়ার পরে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান ২৮ তারিখে বোলপুরে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷  ২৮ তারিখে প্রশাসনিক বৈঠক এবং ২৯ তারিখে বোলপুরের ডাকলো ময়দান থেকে বোলপুরের চৌরাস্তা পর্যন্ত রোড শো করার কথা। তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা এই রোড শো জন্য গোটা বোলপুর শহরকে তাদের দলীয় পতাকা ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিতে ভরিয়ে দিয়েছ। পাশাপাশি রয়েছে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছবি ও রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিভিন্ন কবিতা গান লেখা পোস্টার। তবে কাদের পক্ষ থেকে এই পোস্টার, তা লেখা নেই।রাজনৈতিক মহলের ধারণা কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে রাজনীতির মঞ্চে সবাই ব্যবহার করছে তাই পরিষ্কার এই পোস্টার কারা লাগিয়েছে। রাঙ্গামাটির দেশে আসছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, করবেন রোড শো৷ তাই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছড়া রাঙ্গমাটির দেশে কোনও মনীষীকে ব্যবহার করা যায় না৷ আর শান্তিনিকেতন হলে তো কথাই নয়। তাই সংস্কৃতির জায়গায় দাঁড়িয়ে দেখার বিষয় কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে রাজনীতির ময়দানে নিয়ে এসে কে বেশি লাভবান হয়!

 Indrajit Ruj

Published by: Pooja Basu
First published: December 28, 2020, 12:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर