corona virus btn
corona virus btn
Loading

২৪ অগাস্ট থেকে খুলছে তারাপীঠ মন্দির ! গর্ভগৃহে প্রবেশে মানা ! চালু একগুচ্ছ নিয়ম

২৪ অগাস্ট থেকে খুলছে তারাপীঠ মন্দির ! গর্ভগৃহে প্রবেশে মানা ! চালু একগুচ্ছ নিয়ম

এবার খুলছে তারাপীঠ মন্দিরও, বাইরে থেকে বিগ্রহ দর্শন করতে হবে ভক্তদের। থাকছে একগুচ্ছ নতুন নিয়ম !

  • Share this:

#তারাপীঠ:  গর্ভগৃহে প্রবেশ করা যাবে না, বাইরে থেকে বিগ্রহকে দর্শন করতে হবে পূর্ণ্যার্থীদের। তারাপীঠ মন্দির কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে এমনটাই । দেশের করোনা আবহের জন্য মন্দির বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মন্দির কমিটি আগেই। মন্দির বন্ধ ছিল  ৯৩ দিন। আনলকে পর্বে খুলেছিল তারাপীঠ মন্দিরও। রথের দিন অর্থাৎ ২৩ জুন মঙ্গলবার থেকে ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হয় মন্দির। তবে এবার তারাপীঠে মা তারার রথযাত্রা বন্ধ ছিল। বীরভূম জেলা প্রশাসন ও তারাপীঠ মন্দির কমিটির  বিশেষ বৈঠকে মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।  কৌশিকী অমাবস্যা উপলক্ষ্যে প্রতিবছর লাখ লাখ মানুষের জমায়েত হয় তারাপীঠে।  এবছর করোনার কথা মাথায় রেখেই কৌশিকী অমাবস্যায় তারাপীঠ মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। মানুষের স্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করেই ১২ অগাস্ট থেকে ২০ অগাস্ট  পর্যন্ত তারাপীঠ মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল প্রশাসনের তরফে। কৌশিকী অমাবস্যা উপলক্ষ্যে রাজ্য ও ভিনরাজ্য থেকেই বহু মানুষ আসেন তারাপীঠে। কিন্তু এবার সেই জমায়েত করা যাবে না কোনওভাবেই। তাই মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল ওই সময়ে। তার মধ্যেই বীরভূম জেলাতে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছিল সেই দিকে নজর দিয়েই তারাপীঠ মন্দির কমিটি আবারও সিদ্ধান্ত বদল করেন পয়লা আগস্ট থেকে মন্দির বন্ধ করে দেওয়া হয় অনির্দিষ্টকালের জন্য।

আজ আবার বিশেষ বৈঠক ডাকে তারাপীঠ মন্দির কমিটি ও সেবায়েতদের নিয়ে সেই বৈঠকে দীর্ঘক্ষণ ধরে আলোচনা হওয়ার পর সিদ্ধান্ত হয় আগামী সোমবার ২৪ অগাস্ট  থেকে মন্দির সাধারণ পূর্ণ্যার্থীদের জন্য খুলে দেওয়া হবে। তবে বেশ কিছু নিয়ম লাগু করা হয়েছে ।মন্দির কমিটি সুত্রে খবর, সকল দর্শনার্থী ও সেবায়েতদের  জন্য মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। সেইসঙ্গে মন্দিরে প্রবেশের আগে প্রত্যেকের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করে দেখা হবে। ইতিমধ্যে তিনটি স্যানিটাইজার ট্যানেল বসানো হয়েছে তারাপীঠ মন্দিরের তিনটি গেটে। দর্শনার্থীরা তার ভিতর দিয়ে মন্দিরে প্রবেশ করবেন। সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে পূর্ণ্যার্থীদের দাঁড়াতে হবে। প্রত্যেকের সঙ্গে কম করে ৬ ফুট দূরত্ব রেখে মন্দির চত্বরে দাঁড়াতে হবে। আগের মতো গর্ভগৃহে প্রবেশ করে কোনও পুজো বা অঞ্জলির ব্যবস্থা থাকছে না নতুন নিয়মে। শুধুমাত্র সেবায়েতরাই গর্ভমন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন। দর্শনার্থীদের হয়ে সেবায়েতরাই পুজো দিয়ে আসবেন। আগের মতো কোনও সিঁদুর, চরণামৃত দেওয়ার ব্যবস্থা থাকছে না। নাট মন্দির থেকে মা কে দর্শন করে ফিরতে হবে দর্শনার্থীদের।মন্দির চত্তরে ভান্ডারা বন্ধ করা হয়েছে।পুজোর পর শ্মশানে গিয়ে ভান্ডারা খাওয়াতে পারেন ভক্তেরা।'তারাপীঠ মন্দির কমিটি সভাপতি তারাময় মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, 'সমস্ত রকম রীতি মেনে পুজো করা হবে। তিনটি স্যানিটাইজার ট্যানেল বসানো হয়েছে। পূর্ণ্যার্থীরা তার ভিতর দিয়ে মন্দিরে প্রবেশ করবেন। সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে তাঁদের দাঁড়াতে হবে। আপাতত সেবাইত ছাড়া কাউকে গর্ভগৃহে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

অক্ষয় ধীবর

Published by: Piya Banerjee
First published: August 22, 2020, 5:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर