শুভেন্দু অধিকারীকে ঘিরে থাকবে এবার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী

শুভেন্দু অধিকারীকে ঘিরে থাকবে এবার কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী

Representational Image

শুক্রবারই এই মর্মে সিক্রেট নোট পাঠিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। সূত্রের খবর শুভেন্দু অধিকারীকে এই বিষয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: শুভেন্দু অধিকারীর নিরাপত্তায় এবার কেন্দ্রীয় বাহিনী। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পেতে চলেছেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ, সেচ ও জলপথ উন্নয়ন দফতরের মন্ত্রী। ভিন রাজ্যে গেলে তিনি পাবেন ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা।

শুক্রবারই এই মর্মে সিক্রেট নোট পাঠিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। সূত্রের খবর শুভেন্দু অধিকারীকে এই বিষয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার রাতে বা শনিবারের সভায় বিজেপি'তে যোগদানের পর কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তা বলয় ঘিরে থাকবে নন্দীগ্রামের সদ্য প্রাক্তন বিধায়ককে।গত ২৭ নভেম্বর রাজ্য মন্ত্রীসভার সদস্য পদ থেকে ইস্তফা দেন শুভেন্দু অধিকারী। ১৬ ডিসেম্বর বিধানসভায় গিয়ে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন। ১৭ ডিসেম্বর ২১ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করেন তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে।

সূত্রের খবর, শনিবার মেদিনীপুরের কলেজ মাঠে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের সভা। সেই সভা থেকেই রাজনীতিতে তিনি নয়া ইনিংস শুরু করতে পারেন। সেখানেই তাকে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর ঘেরাটোপে দেখা যাবে। অপর একটি সূত্রে খবর, শুক্রবার রাতেই তাঁর পূর্ব মেদিনীপুরের বাড়িতে চলে আসতে পারে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা।কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সিক্রেট নোট অনুযায়ী তিনি পাবেন জেড প্লাস নিরাপত্তা। সেই অনুযায়ী বুলেটপ্রুফ গাড়ি পাবেন। থাকার কথা রয়েছে মহিলা নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানদের। এর আগেও অবশ্য জেড প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পেতেন শুভেন্দু অধিকারী।

মাওবাদীদের হুমকি রয়েছে। সেই কারণেই রাজ্যের তরফে শুভেন্দু অধিকারীকে দেওয়া হয়েছিল জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা। তিনি নিরাপত্তারক্ষীদের ছেড়ে দিয়েছিলেন। যদিও রাজ্যসরকার শুভেন্দু অধিকারীর নিরাপত্তার কথা ভেবে তার নিরাপত্তা বহাল রেখেছিল। কেন্দ্রীয় সরকার তাকে আগেই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা গ্রহণ করতে বলেছিল। কিন্তু বিধায়ক পদ ও দল না ছেড়ে সেই নিরাপত্তা নিতে নীতিগত ভাবে তিনি রাজি হননি। এবার আর সেই নিরাপত্তা নিতে আর কোনও বাধা রইল না বলেই জানাচ্ছেন তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলের সদস্যরা।

আবীর ঘোষাল

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: