দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ডিজি, এসপি-র বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাচ্ছেন শুভেন্দু! কাঁথির ঘটনায় নালিশ অমিত শাহকে

ডিজি, এসপি-র বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাচ্ছেন শুভেন্দু! কাঁথির ঘটনায় নালিশ অমিত শাহকে
গড়বেতার সভায় শুভেন্দু৷
  • Share this:

#গড়বেতা: রাজ্য পুলিশের ডিজি ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হচ্ছেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। সোমবার পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতায় এক জনসভায় যোগ দেন শুভেন্দু অধিকারী। সেখানেই তিনি জানিয়েছেন, "আমাকে বাধা দেওয়া হচ্ছে। একাধিক জায়গায় সমস্যা তৈরি করা হচ্ছে। তাই আমি ডিজি ও এসপি'র বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হব।"

এর পাশাপাশি শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, রবিবার কাঁথিতে তাঁর রোড শো ও সভা শেষের পরে যেভাবে বিজেপি কর্মীদের উপরে আক্রমণ করা হয়েছে সে বিষয়ে তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অভিযোগ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, "আমি কাঁথির ঘটনা অমিত শাহজিকে ই মেল করে জানিয়েছি। একই সঙ্গে গোটা ঘটনা সম্পর্কে রিপোর্ট দিয়েছি রাজ্যপালকেও।"

ফলে রাজনৈতিক লড়াইয়ের পাশাপাশি এবার রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধেও অসহযোগিতার অভিযোগ তুলছেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ ও সেচ মন্ত্রী। সপ্তাহের প্রথম দিন থেকেই রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে নেমে পড়েছেন শুভেন্দু। অবিভক্ত মেদিনীপুরের সব আসন যে বিজেপির লক্ষ্য তা বোঝাতে লাগাতার সভা-সমাবেশ করে চলেছেন তিনি। ৪ জানুয়ারি গড়বেতার কাছেই ছোট আঙারিয়া গ্রামে  গণহত্যা নিয়ে শহিদ স্মরণ দিবস পালন করে তৃণমূল। সেই একইদিনে শুভেন্দু অধিকারী গড়বেতায় সভা করে বুঝিয়ে দিলেন তিনি শহিদদের সম্মান জানিয়েছেন। অন্যদিকে গড়বেতা এমন একটা জায়গা যার কাছে বাঁকুড়া ও হুগলি জেলা। ফলে এখানে সভা করলে একটা বড় অংশের কাছে বার্তা পৌছে যাবে।

এ দিন গড়বেতায় অবশ্য সভা আর তার পালটা সভা ছিল। দু'পক্ষই পরস্পরের সভাকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। গড়বেতার তৃণমুল বিধায়ক আশিস চক্রবর্তী জানিয়েছেন, "যে মাঠে সভা করা হচ্ছে তা মুল মাঠের দুই-তৃতীয়াংশ। এত ছোট মাঠে সভা করিয়ে লোকের ভিড় হয়েছে দেখাতে চায় বিজেপি।" পালটা কটাক্ষ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি জানিয়েছেন, "একটা ঝুড়ির মাঠে সভা করছে ওরা। আমি যেখানেই সভা করি তার পরে সভা করতে যায় ওরা। একই দিনে সভা করে দেখাক। কার সভায় কত ভিড়।" এর পাশাপাশি তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন, ২০১০ সালে গড়বেতায় প্রথম সভা করতে এসে তিনি এক গ্লাস জল পাননি। সেদিন তিনি গড়বেতা হাইস্কুল মাঠে সভা করেছিলেন। সেই সভায় লোক হয়েছিল ২৫০০। তাঁর দাবি, এ দিন তাঁর সভায় লোক হয়েছে ১০ গুণ বেশি। ফলে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে তিনি জানিয়েছেন, যে গড়বেতা জেতার পথ দেখাবে বলে তৃণমুল দাবি করত। সেই গড়বেতা এবার পথ দেখাবে বিজেপিকে।

 এ দিনের সভা থেকেও তিনি আক্রমণ শানিয়েছেন তাঁর পুরোন দলের বিরুদ্ধে। সাইকেল ও স্যানিটাইজারের টাকা কাটমানি হিসেবে তৃণমূল নেতারা আত্মসাৎ করেছেন বলেও কটাক্ষ করেন শুভেন্দু৷ অভিযোগ করেছেন, কোভিডের সময় ডাক্তারদের রেনকোট দিয়েছে সরকার। এমন কি স্কুলের বাচ্চাদের যে ছোলা দেওয়া হচ্ছে তা গরুতেও খায়না বলে অভিযোগ তাঁর। বাম নেতা সুশান্ত ঘোষের গড়ে শুভেন্দুর সভা ঘিরে আগ্রহ ছিল  স্থানীয় মানুষের মধ্যেও। তৃণমুলের বিধায়ক  আশিস চক্রবর্তীর অবশ্য় দাবি, "একদিকে হার্মাদ সুশান্ত ঘোষ, অন্যদিকে গদ্দার শুভেন্দু অধিকারী। এদের কাউকেই গড়বেতার মানুষ বিশ্বাস করবে না। উন্নয়নকে সামনে রেখে তৃণমুল জয় পাবে।"

Abir Ghosal

Published by: Debamoy Ghosh
First published: January 4, 2021, 6:44 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर