Suvendu Vs Mamata: '২৭‍% ওঁর, ৭৩ আমার' নন্দীগ্রামের ফলের আগাম 'হিসেব' দিলেন শুভেন্দু!

শুভেন্দুর দাবিতে শোরগোল

শুভেন্দুর দাবি, 'উনি ভাবছেন ২৭ শতাংশ ভোট পেয়ে জিতে যাবেন। আরে ২৭ উনি পেলে, ৭৩ তো রয়েছে। সেই ভোটটা কোথায় যাবে? সেই পুরোটাই আমি পাব।'

  • Share this:

    #রায়দিঘি: প্রধানমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, এবং প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী নিজে -- সকলেরই এক দাবি, নন্দীগ্রামে জয় নিশ্চিত বিজেপির। অপরদিকে, নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়েরও পালটা দাবি, 'মানুষের আশীর্বাদে আমিই জিতছি নন্দীগ্রামে।' দু'পক্ষের এই দাবি, পালটা দাবির প্রেক্ষিতে এবার নন্দীগ্রামের ভোট 'হিসেব' দিয়ে নিজের জয় 'কনফার্ম' বলে আরও একবার দাবি করলেন শুভেন্দু অধিকারী। কী হিসেব? শুভেন্দুর দাবি, 'উনি ভাবছেন ২৭ শতাংশ ভোট পেয়ে জিতে যাবেন। আরে ২৭ উনি পেলে, ৭৩ তো রয়েছে। সেই ভোটটা কোথায় যাবে? সেই পুরোটাই আমি পাব।'

    নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী হিসেবে নিজের নাম ঘোষণার পর থেকেই শুভেন্দুর অন্যতম অস্ত্র হয়ে ওঠে ধর্মীয় মেরুকরণ। আর তা করতে গিয়ে কখনও মমতাকে 'বেগম' বলে আক্রমণ শানিয়েছেন অধিকারী পরিবারের মেজো সন্তান, কখনও আবার নন্দীগ্রামের মধ্যেই 'মিনি পাকিস্তান' গড়ে উঠেছে বলে দাবি করেন। আর সেই সূত্রেই শুভেন্দুর এই 'হিসেব'।

    নন্দীগ্রামের দুটি ব্লক মিলে মোটামুটি ২৭ শতাংশ সংখ্যালঘু ভোট, আর বাকি হিন্দু ভোট। শুভেন্দুর এদিনের দাবি ফের সেই হিন্দু-মুসলিম ভোট ভাগাভাগির দিকেই। অর্থাৎ, এদিন বোঝাতে চেয়েছেন মমতা ২৭ শতাংশ ভোট পেলেও পেতে পারেন, কিন্তু হিন্দুদের স্বার্থে নন্দীগ্রামের ৭৩ শতাংশ হিন্দুরা তাঁকেই ভোট দেবেন। আর শুভেন্দুর এই মেরুকরণের রাজনীতিকেই বারবার নিশানা করেছে তৃণমূল, সিপিএম সহ বাকি সব দলই।

    প্রসঙ্গত, নন্দীগ্রামের ভোটের অনেক আগে থেকেই তৃণমূল যখন মমতার জন্য 'বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়' বলে গোটা রাজ্যে প্রচার শুরু করে, শুভেন্দু তখন নিজেকে নন্দীগ্রামের 'ঘরের ছেলে' বলে নিজেকে তুলে ধরেন। যদিও নন্দীগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় তাঁকে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছিল বারবার। আর সেই বিক্ষোভের প্রেক্ষিতেই শুভেন্দুকে বলতে শোনা যায়, 'নন্দীগ্রামে ঝামেলা করছেন পাকিস্তানিরা', আবার কখনও তিনি বলেছেন, তৃণমূল ফিরলে বাংলা কাশ্মীর বা বাংলাদেশ হয়ে যাবে।

    এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার রায়দিঘিতে সভা করেন শুভেন্দু। বিজেপি বাংলায় ক্ষমতায় এলে, একসময় সিপিএম নেতা কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়ের গড় থেকে বর্তমানে তৃণমূলের দুর্গ হয়ে ওঠা রায়দিঘিতে উন্নয়নের জোয়ার বইবে বলেও দাবি করেন নন্দীগ্রামের বিজেপি প্রার্থী। একই সঙ্গে তাঁর সতর্কবাণী, 'তৃণমূলকে যদি ফের ক্ষমতায় আনেন আপানারা, তাহলে ধ্বংস হয়ে যাবে এই রাজ্য। অনুপ্রবেশকারীরাই সর্বেসর্বা হয়ে উঠবে।'

    Published by:Suman Biswas
    First published: