কেন তিনি মীরজাফর নন, 'ম্যাম'কে নিশানা করে যুক্তি নন্দীগ্রামের 'ঘরের ছেলে'র

কেন তিনি মীরজাফর নন, 'ম্যাম'কে নিশানা করে যুক্তি নন্দীগ্রামের 'ঘরের ছেলে'র

শুভেন্দু অধিকারী

শুভেন্দুর নাম উল্লেখ না করে মমতা বলেছেন, 'আমাদের দল থেকে কয়েকজন বেরিয়ে যাওয়ায় এই দল এখন শুধুই মানুষের দল। মীরজাফররা চলে গিয়েছে, গুন্ডারা চলে গিয়েছে। আমি বেঁচে গিয়েছি।'

  • Share this:

    #নন্দীগ্রাম: বঙ্গ রাজনীতির এপিসেন্টার এখন নন্দীগ্রাম। যুযুধান দুই মহারথীর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু তৃণমূল এখন শুভেন্দুকে 'মীরজাফর' বলে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে। নন্দীগ্রামেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। মঙ্গলবারই বাঁকুড়ার মেজিয়ার সভা থেকে শুভেন্দুর নাম উল্লেখ না করে মমতা বলেছেন, 'আমাদের দল থেকে কয়েকজন বেরিয়ে যাওয়ায় এই দল এখন শুধুই মানুষের দল। মীরজাফররা চলে গিয়েছে, গুন্ডারা চলে গিয়েছে। আমি বেঁচে গিয়েছি।' তারই জবাব যেন এদিন নন্দীগ্রাম থেকে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূল কেন ছাড়লেন, তারই সাফাই দিতে গিয়ে নিজেকে 'ঘরের ছেলে' দাবি করা শুভেন্দু বলেন, 'আমাকে ইয়েস ম্যাম-ইয়েস ম্যাম করতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তা আমি বলতে পারতাম না। শুভেন্দুকে নিয়ে সেটাই সমস্যা তৃণমূল কোম্পানির।'

    বিজেপিতে যোগ দেওয়া ইস্তক সমস্ত ক্ষেত্রেই নরেন্দ্র মোদি কতটা উন্নয়ন করেছেন, সাহায্য করেছেন বাংলাকে, এমনকী নন্দীগ্রাম আন্দোলনে বিজেপির বিরাট ভূমিকা প্রচার করতেই দেখা গিয়েছে শুভেন্দুকে। বরাবরের মতো এদিনও অন্যথা হয়নি। শুভেন্দুর দাবি, 'গত বছর অবধি যাঁরা আসেননি, আগামী বছর যাঁরা আসবেন না, তাঁরা এখন এখানে আসছেন। যাঁরা নন্দীগ্রামে গুলি চালিয়েছিল, তাদের দলে নিয়েছে তৃণমূল, অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের পদোন্নতি দিয়েছে। কিন্তু আমি, আপনাদের গ্রামের ছেলে সেইসব শহিদ পরিবারেরে কাছে দায়বদ্ধ।'

    নন্দীগ্রামে তাঁর কতটা কাছের, তা বোঝাতেই শুভেন্দু বলেন, 'ভোট থাকুক না থাকুক, পদ থাকুক না থাকুক, নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারী ছিল, থাকবে।' এমনকী এবার নন্দীগ্রামে কীভাবে ভোট হবে, তাও যেন বকলমে জানিয়ে দেন তিনি। বলেন, ‘এবার সবাই নিজে ভোট দেবেন, ব্যবস্থা আমি করব। কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তায় নতুন ভোট দেখবেন আপনারা।’

    বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই শুভেন্দু প্রতিটা সভাতেই অনুরোধের সুরে বলছেন, 'বাংলাকে মোদিজির হাতে তুলে না দিলে বাংলা বাঁচবে না।' এদিনও 'মোদিজি'র হয়ে সওয়াল করেন তিনি। তৃণমূলকে নিশানা করতে গিয়ে বলেন, 'লকডাউনে মোদিজি বিনা পয়সায় রেশন দিয়েছেন। বিনে পয়সার গ্যাস দিয়েছে। আর এখন তৃণমূল বলছে, ক্ষমতায় ওরা না এলে এসব বন্ধ হবে।' একইসঙ্গে এদিনও প্রত্যয়ের সুরেই তিনি বলেন, 'আমিই জিতব, আমিই জিতব, আমিই জিতব।' যদিও তৃণমূলের কটাক্ষ, নন্দীগ্রামে হার নিশ্চিত জেনেই অসংলগ্ন কথাবার্তা বলছেন নব্য় বিজেপি নেতা শুভেন্দু।

    Published by:Suman Biswas
    First published: