Home /News /south-bengal /
Surprise Jail visit: জেলবন্দিদের মানসিক স্বাস্থ্য কেমন? মনের 'মেঘ' খুঁজতে সারপ্রাইজ ভিজিট বিচারপতির!

Surprise Jail visit: জেলবন্দিদের মানসিক স্বাস্থ্য কেমন? মনের 'মেঘ' খুঁজতে সারপ্রাইজ ভিজিট বিচারপতির!

Mental State of Jail Inmates: আগামী দিনে অন্য যে কোনও জেলায় হতে পারে সংশোধনাগারের আচমকা পরিদর্শন।

  • Share this:

#মুর্শিদাবাদ: রাজ্যের সমস্ত জেল বন্দিদের মনের কোণে কি মেঘ জমেছে? মানসিকভাবে কতটা সুস্থ জেল বন্দিরা? মনের বিকার আটকাতে গরাদের ভিতর কি আদৌ পর্যাপ্ত কাউন্সেলিং হয়? জেলে কি চিকিৎসক বা মনোবিদ রয়েছেন? যদি থেকেও থাকেন, সংখ্যায় তাঁরা কি পর্যাপ্ত? এই সব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই জেলে হঠাৎ করে হাজির খোদ বিচারপতি! পরপর সারপ্রাইজ ভিজিট জেলায় জেলায় সংশোধনাগার গুলিতে। মঙ্গলবার বীরভূমের সিউড়ি সংশোধনাগারে আচমকা পরিদর্শনে যান বিচারপতি সৌমেন সেন। বুধবার বিচারপতি পৌঁছে যান মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুর সংশোধনাগারে। কলকাতা হাইকোর্ট লিগাল সার্ভিস অথরিটির চেয়ারম্যান বিচারপতি সৌমেন সেন।

আরও পড়ুন- মৃত্যুর কয়েক মিনিট আগে হোটেলের করিডোরে কী করছিলেন কেকে? ভাইরাল হল সিসিটিভি ফুটেজ

মুর্শিদাবাদের বহরমপুরে বর্তমানে ৯-১০ জন বাংলাদেশি বন্দি রয়েছেন। তাঁদের পরিস্থিতিরও খোঁজ নেয় অথরিটি। সংশোধনাগারের বন্দিদের মনের খোঁজ নিতেই তিনি সারপ্রাইজ ভিজিট শুরু করেছেন বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গল এবং বুধবার সারপ্রাইজ ভিজিটে গিয়ে সংশোধনাগারে কিছু অসঙ্গতি বিচারপতির নজরে এসেছে বলেই সূত্রের খবর। মূলত সংশোধনাগারে পরিষ্কার পরিছন্নতার অভাব এবং কিছু ক্ষেত্রে পরিকাঠামোগত ত্রুটি নজরে এসেছে কমিটির।

কলকাতার পর এবার জেলায় পরিদর্শন শুরু করেছেন বিচারপতি। ইতিমধ্যে সাত আটটি সংশোধনাগারে আচমকা পরিদর্শন সম্পন্ন হয়েছে। গরমের ছুটির মধ্যে অবকাশে না থেকে সংশোধনাগারগুলির স্বাস্থ্য উদ্ধারের লক্ষ্যেই এই পরিদর্শন। আগামী দিনে অন্য যে কোনও জেলায় হতে পারে সংশোধনাগারের আচমকা পরিদর্শন। সংশোধনাগারে কতজন দোষী সাব্যস্ত বা কতজন বিচারাধীন বন্দি রয়েছেন, সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে মহিলা বন্দিদের দশা কী রকম তারও খোঁজ নিচ্ছে কমিটি।

আরও পড়ুন- প্রধানমন্ত্রীকে রাজনীতির প্রশ্ন করা আমার কাজ নয়: ২০১৯-এর আড্ডা বিষয়ে অক্ষয় কুমার

জেলে থাকা বন্দিদের শিশুদের জন্য খেলার জায়গা যথাযথ রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখছে কমিটি। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে দেশের সমস্ত সংশোধনাগারের বন্দিদের অতি ভিড় এবং বন্দিদের মানসিক স্থিতি জরিপ করতেই এই কর্মসূচি নেওয়া হয়। তারই অংশ হিসেবে কলকাতা হাইকোর্টের তৎকালীন প্রধান বিচারপতি টিভি রাধাকৃষ্ণণের নির্দেশে একটি বিশেষ বেঞ্চ তৈরি হয়। বিচারপতি শম্পা সরকারের বেঞ্চে রাজ্যের সমস্ত সংশোধনাগারের মানসিক স্থিতি নিয়ে জনস্বার্থ মামলার দেখভালের দায়িত্বে কলকাতা হাইকোর্ট লিগাল সার্ভিস অথরিটি। রাজ্যের সর্বত্র আইনি সচেতনতা বাড়ানো এবং তার প্রচার বাড়ানোর লক্ষ্যে কাজ করে এই অথরিটি। আচমকা পরিদর্শনের পর জেলাগুলির সংশোধনাগারের সার্বিক চিত্র নিয়ে রিপোর্ট হলফনামা আকারে জমা পড়বে আদালতে।

Published by:Madhurima Dutta
First published:

Tags: Jail

পরবর্তী খবর