corona virus btn
corona virus btn
Loading

১০০ কেজির মহিলাকে লোকাল অ্যানাস্থেসিয়া দিয়ে সিজার, নজির গড়লেন চিকিৎসকরা

১০০ কেজির মহিলাকে লোকাল অ্যানাস্থেসিয়া দিয়ে সিজার, নজির গড়লেন চিকিৎসকরা
প্রতীকী ছবি

বীরভূমের সিউড়ি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে এক সংকটজনক রোগী ও তাঁর বাচ্চাকে বাঁচানো গেল চিকিৎসকদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ।

  • Share this:

#সিউড়ি: বীরভূমের সিউড়ি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে এক সংকটজনক রোগী ও তাঁর বাচ্চাকে বাঁচানো গেল চিকিৎসকদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় । বীরভূমের লাভপুরের হাতিয়া গ্রামের বাসিন্দা এক মহিলা প্রসবযন্ত্রণা নিয়ে ভর্তি হন সিউড়ি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে । প্রায় ১০০ কেজি ওজন হওয়ায় শারীরিক সমস্যা ছিল তাঁর । ফলে নর্মাল ভাবে প্রসব যে সম্ভব নয়, তা বুঝতে পারেন চিকিৎসকরা । ফলে সিজার করার দরকার পড়ে । কিন্তু অপারেশন থিয়েটারে এই রোগিনীকে নিয়ে গিয়ে চরম বিড়ম্বনায় পড়েন চিকিৎসকরা ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে , চিকিৎসকরা বহুবার চেষ্টা করেও ওই মহিলার  শিরদাঁড়ায় ইনজেকশন দিতে পারছিলেন না । ফলে অজ্ঞান করা যাচ্ছিল না তাঁকে । এ দিকে সময় গড়িয়ে যাওয়ায় বাচ্চা ও মায়ের অবস্থা ক্রমেই খারাপ হতে শুরু করে,  শুরু হয় ফিটাল ডিসট্রেস । পাশাপাশি মহিলার শ্বাসকষ্ট বাড়তে থাকে । এমন রোগীকে চিকিৎসা করার পরিকাঠামো না থাকায় চিন্তিত হয়ে পড়েন চিকিৎসকরা । অন্যদিকে , অবস্থা এমনই দাঁড়ায় যে তাঁকে বর্ধমান হাসপাতাল পাঠানো সম্ভব ছিল না । কারণ সেখানে পৌঁছতে যে সময় লাগবে তাতে বাচ্চার মৃত্যু অবশ্যম্ভাবী ছিল । মায়ের অবস্থা ভাল ছিল না ।

ফলে চিকিৎসকরা সিদ্ধান্ত নেন , লোকাল অ্যানেস্থেসিয়া দিয়েই সিজার করবেন তাঁরা । হাইরিস্ক কনসেন্ট নিয়ে সম্পূর্ণ অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয় । সিউড়ি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ দেবাশীষ দেবাংশী ( গাইনোকলজিস্ট)  , ডক্টর গৌতম রায় (অ্যানাস্থেসিস্ট) এবং সিস্টার মানসী মন্ডল (অ্যাসিস্ট্যান্ট)-এর তত্বাবধানে এইচপিয় অস্ত্রোপচার । নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করা হয় অস্ত্রোপচার । মা ও শিশু দু'জনেই এখন সুস্থ । চিকিৎসকদের সম্মিলিত চেষ্টাতে দু'জনেই সুস্থ থাকায় খুশী রোগীর বাড়ির আত্মীয়রা।

Supratim Das

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 24, 2020, 1:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर