এবার স্পিকারের দর্শনপ্রার্থী দিব্য়েন্দু অধিকারীও! রবিবাসরীয় সন্ধ্যায় নাটক জমজমাট

এবার স্পিকারের দর্শনপ্রার্থী দিব্য়েন্দু অধিকারীও! রবিবাসরীয় সন্ধ্যায় নাটক জমজমাট

দিব্যেন্দু অধিকারীও কি বিজেপিতে?

রবিবারের সারাদিন রাজ্যের চোখ ছিল ডুমুরজোলায় বিজেপির যোগদানমেলায় আর শেষমেলায় বঙ্গ রাজনীতিতে আরও একবার নতুন জিজ্ঞাসার জন্ম হল।

  • Share this:

#কলকাতা: সারাদিন নাটকীয়তার পর নতুন জল্পনার পারদ চড়িয়ে দিলেন দিব্যেন্দু অধিকারী। সূত্রের খবর, লোকসভার স্পিকারের সঙ্গে দেখা করতে চাইলেন শুভেন্দুর ভাই দিব্যেন্দু। ১০ ফেব্রুয়ারি স্পিকারের সঙ্গে দেখা করতে চান তিনি। তাহলে কি এবার শুভেন্দু পথেই যাবেন দিব্যেন্দু? অধিকারী পরিবার বলছে, হ্যাঁ পদত্যাগই করতে চান শুভেন্দুর ভাই দিব্যেন্দু। অবশ্য দিব্যেন্দু নিজে বলছেন যা বলার স্পিকারের সঙ্গে দেখা করার পরেই বলবেন তিনি। রবিবারের সারাদিন রাজ্যের চোখ ছিল ডুমুরজোলায় বিজেপির যোগদানমেলায় আর শেষমেলায় বঙ্গ রাজনীতিতে আরও একবার নতুন জিজ্ঞাসার জন্ম হল।

প্রসঙ্গত ৭ ফেব্রুয়ারির সাত  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভায় যাবেন, তার আগে আজ, রবিবার কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানের প্রস্তুতিত নজর রাখতে দেখা যাবে দিব্যেন্দু অধিকারীকে। কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান এসেছেন হলদিয়ায়। হলদিয়া গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করবেন তমলুকের তৃণমুল সাংসদ। ইতিমধ্যেই তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কর্মসূচিতে। তাহলে কি খোদ প্রধানমন্ত্রীর  সঙ্গে মঞ্চভাগের পরেই ইস্তফা দিতেই স্পিকারের সঙ্গে দেখা করবেন দিব্যেন্দু, প্রশ্নটা থাকছে।

শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগদানের পর কাঁথির অধিকারী পরিবারের বাকি সদস্যদের পরবর্তী রাজনৈতিক পদক্ষেপ নিয়ে জোর জল্পনা চলছেই। সৌমেন্দু বিজেপিতে যোগ দিলেও দুই সাংসদ শিশির অধিকারী এবং দিব্যেন্দু অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা অব্যাহত। দিব্যেন্দু অবশ্য এদিন জল্পনা উড়িয়েই দিনভর বলেছিলেন তৃণমূলেই স্থানু তিনি। কিন্তু রাত বাড়তেই নতুন ইঙ্গিত।

সৌমেন্দুর বিজেপিতে যোগদানের আগে শুভেন্দু বলেছিলেন, তাঁদের বাড়িতেও পদ্ম ফুটবে। এরপর দিব্যেন্দুর পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে জোর জল্পনা চলছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে স্থানীয় সাংসদ হিসেবে দিব্যেন্দুকে এক সপ্তাহেরও বেশি আগে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আমন্ত্রণ সাদরে দিব্যেন্দু গ্রহণ করেছে বলে খবর। এসবের মধ্যেই সরকারি ভাবে তাঁকে মনোনীত করা হয়েছিল, সেসব পদ থেকে তাঁকে সরানো হয়েছে। যদিও দিব্যেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, তাঁকে সরানোর আগেই তিনি এইসব পদ নিজেই ছেড়ে দিয়েছেন। এদিকে, দিব্যেন্দু অধিকারীকে এখনও হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদের নতুন কমিটির সদস্য রাখা হয়েছে। তবে তমলুক লোকসভা এলাকার তিনটি কলেজের পরিচালন সমিতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে তমলুকের তৃণমূল সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীকে। সাংসদের দাবি, অনেক আগেই তিনি ওই তিনটি কলেজের সভাপতি পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। কিন্তু প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, সাংসদকে সরিয়ে প্রশাসক নিয়োগ করা হয়েছে শিক্ষা দফতরের নির্দেশেই।

Published by:Arka Deb
First published:

লেটেস্ট খবর