দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

যত ভাঙবে, তত ভোট বাড়বে, পুরুলিয়া থেকে বার্তা শুভেন্দু অধিকারীর

যত ভাঙবে, তত ভোট বাড়বে, পুরুলিয়া থেকে বার্তা শুভেন্দু অধিকারীর
শুভেন্দুর সভায় ভিড়। নিজস্ব চিত্র

জঙ্গলমহলের এই জেলায় তৃণমূলে থাকাকালীন দীর্ঘদিন ধরে সংগঠন সামলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। যদিও গত লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই শুভেন্দুর হাত থেকে চলে যায় সেই দায়িত্ব।

  • Share this:

#কাশীপুর: যত ভাঙবে, তত বাড়বে। ভোটের ব্যবধান এতে বাড়বে। এমনটাই মত বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর। নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর অফিস ভাঙচুর করা হয়েছে। এমনটাই অভিযোগ করছেন শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ শিবির। অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে নিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী নিজেই। এদিন পুরুলিয়ার একটি রোড-শো ও সভায় হাজির ছিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেখানেই তিনি জানান, "নন্দীগ্রামে যা হচ্ছে, প্রত্যেকেই তা আপনাদের মাধ্যমে দেখতে পাচ্ছেন। কে কে করছে? কতজন করছে? কোন গোষ্ঠী করছে এইসব সবটাই আপনারা দেখতে পাচ্ছেন। তবে এটায় আমি খুশি৷ যত এই সব করবে তত আমার ভোট বাড়বে। গত বিধানসভা ভোটে জিতেছিলাম ৮২ হাজার ভোটে, এবার ভোটে আরও বেশি ভোট পেয়ে জিতব।"

প্রসঙ্গত গত ৮ জানুয়ারি নন্দীগ্রামে তার নেতৃত্বে একটি সভা হয়। সেই সভায় গোলমালের অভিযোগ তুলেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তার পর লাগাতার গত দু'দিন ধরে নন্দীগ্রামে তার অফিস ভাঙচুর, সদস্যদের বাইক জ্বালানো হয়েছে। সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই নন্দীগ্রাম নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন শুভেন্দু। শুভেন্দু অধিকারী অবশ্য তাঁর লাগাতার রাজনৈতিক কর্মসূচী চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিন তাঁর হাতের তালুর মতো চেনা জেলা পুরুলিয়ায় সভা করেন শুভেন্দু।

জঙ্গলমহলের এই জেলায় তৃণমূলে থাকাকালীন দীর্ঘদিন ধরে সংগঠন সামলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। যদিও গত লোকসভা নির্বাচনের আগে থেকেই শুভেন্দুর হাত থেকে চলে যায় সেই দায়িত্ব। শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠ শিবিরের বক্তব্য ছিল, অভিষেক বন্দোপাধ্যায়কে জেলার দায়িত্ব দিয়ে তৃণমূলের সেই সংগঠন নষ্ট হয়ে যায়। তবে এমন অভিযোগ মানতে রাজি নয় তৃণমূল।

তবে এই তত্ত্বকে সামনে রেখেই জঙ্গলমহলের পুরুলিয়া জেলায় শুভেন্দু অধিকারী নিজের  সংগঠনকে আরও সক্রিয় করে তুলতে চাইছেন। সেই কারণেই তিনি জানিয়েছেন, "এখন থেকে পুরুলিয়া জেলায় আমি প্রতি ১৫দিন অন্তর আসব। এখানকার রাস্তা, গ্রাম, মানুষ সকলের চেনা। তাদের কাছে আরও একবার আমি পৌছে যাব।" অবিভক্ত মেদিনীপুর আগেই টার্গেট করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপি চাইছে শুভেন্দুর হাতের তালুর মতো চেনা জেলাগুলিতে তাকে আরও বেশি করে সক্রিয় করতে। সে কারণেই জঙ্গলমহলের জেলায় এবার জনসংযোগ বৃদ্ধি করতে চাইছেন শুভেন্দু।

Published by: Arka Deb
First published: January 10, 2021, 5:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर