নেই বিদ্যুৎ তাই প্রচন্ড গরমেও গাছের তলায় চলছে স্কুলের ক্লাস

ভাদ্রের গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা। তার মধ্যে বিদ্যুত নেই চার দিন। স্কুলে পড়ুয়াদের হাতপাখা দিয়ে হাওয়া করতে বাধ্য হচ্ছেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Sep 08, 2017 09:13 AM IST
নেই বিদ্যুৎ তাই প্রচন্ড গরমেও গাছের তলায় চলছে স্কুলের ক্লাস
Representational Image
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Sep 08, 2017 09:13 AM IST

#বর্ধমান: ভাদ্রের গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা। তার মধ্যে বিদ্যুত নেই চার দিন। স্কুলে পড়ুয়াদের হাতপাখা দিয়ে হাওয়া করতে বাধ্য হচ্ছেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা। এ ছবি, পূর্ব বর্ধমানের বামচাঁদাইপুর নিম্নবুনিয়াদি বিদ্যালয়, গার্লস স্কুলের। একইসঙ্গে বিদ্যুত নেই বামচাঁদাইপুর উপস্বাস্থ্যকেন্দ্রেও। তাই পড়ুয়ারা অসুস্থ হয়ে পড়লেও চিকিৎসা করা যাচ্ছে না। অভিযোগ, শক্তিগড় বিদ্যুৎ দফতরে যোগাযোগ করেও কোনও সুরাহা হয়নি।

পড়ুয়াদের হাতপাখা দিয়ে হাওয়া করছেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা। প্রচণ্ড গরমে ক্লাস নিতে হচ্ছে গাছের তলায়। এ'ছবি পূর্ব বর্ধমানের বামচাঁদাইপুর এলাকার। ট্রান্সফর্মার পুড়ে যাওয়ায় দিন চারেক হল এলাকায় বিদ্যুৎ নেই। নিম্নবুনিয়াদি বিদ্যালয় ও গার্লস স্কুলে তো বটেই, একইসঙ্গে বিদ্যুতহীন লাগোয়া একটি বামচাঁদাইপুর উপস্বাস্থ্যকেন্দ্রও। তাই গরমে পড়ুয়াদের শ্বাসকষ্ট, পেটের রোগ-সহ একাধিক সমস্যা হলেও উপশমের কোনও উপায় নেই। আতঙ্কে দু'টি স্কুলেই হাজিরাও কমে গিয়েছে।

স্থানীয় বাসিন্দা বা শিক্ষকদের অভিযোগ, শক্তিগড় ইলেকট্রিক সাপ্লাই অফিসে যোগাযোগ করেও লাভ হয়নি।

মিড ডে মিল খাওয়ার সময় পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার নিচ্ছে। কবে বিদ্যুৎ দফতরের হুঁশ ফিরবে, অপেক্ষায় বামচাঁদাইপুর।

First published: 09:13:49 AM Sep 08, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर